গৌরনদী সংবাদ

গরঙ্গলে যৌতুকের বলি জেসমিন আক্তার, ঘাতক স্বামী গ্রেপ্তার

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার পূর্বগরঙ্গল গ্রামে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন।

নিহতের নাম জেসমিন আক্তার। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে।

হত্যার অভিযোগে স্বামী কামরুল হাসানকে (২৫) আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, পাবনা জেলা সদরের দক্ষিণ রাঘবপুর গ্রামের মৃত আঃ জলিলের মেয়ে জেসমিন আক্তারের সাথে গৌরনদী উপজেলার পূর্বগরঙ্গল গ্রামে আব্দুল হক প্যাদার পুত্র কামরুল হাসানের মোবাইল ফোনে পরিচয় হয়। এরপর ২০১২ সালের জুন মাসে তাদের বিয়ে হয়।

নিহত জেসমিনের বোন হালিমা বেগম অভিযোগ করেন, তার স্কুল পড়ুয়া বোন জেসমিনকে বিয়ে করার পর থেকে স্বামী কামরুল বিভিন্ন সময় নানা অজুহাতে যৌতুক নেয়। সর্বশেষ কামরুল ব্যবসার জন্য ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে।

ঈদুল আজহা উদযাপন শেষে জেসমিন ও কামরুল বৃহস্পতিবার সকালে পাবনা থেকে রওনা হয়ে সন্ধ্যায় গৌরনদী পৌঁছায়।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে কামরুল ও তার পরিবারের লোকজন পুনরায় দাবিকৃত যৌতুকের টাকার জন্য শারীরিক নির্যাতন করে।

নির্যাতনের এক পর্যায়ে জেসমিনকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

পরবর্তীতে জেসমিনের গলায় শাড়ি দিয়ে বসত ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে।

পুলিশ খবর পেয়ে গভির রাতে লাশ উদ্ধার করে ও স্বামী কামরুল হাসানকে আটক করে।

গৌরনদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নিহতের স্বজনরা পাবনা থেকে আসার পরে মামলা করা হবে।

Tags

আরও সংবাদ...

Back to top button