বরিশাল

মাওয়া ট্রাজেডি : বরিশালে পিনাকের ১১ লাশ উদ্ধার

মাওয়ার পদ্মা নদীতে নিমজ্জিত পিনাক-৬ লঞ্চের হতভাগ্য আরো ৫ যাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ, বাকেরগঞ্জ ও হিজলা থানা পুলিশ। এ নিয়ে বরিশালে সর্বমোট ১১ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার একেএম এহসান উল্লাহ্ জানান, শুক্রবার সকালে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার উলানিয়া ইউনিয়নের মেঘনা নদী থেকে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া মরদেহটি লঞ্চ ডুবির কন্ট্রোল রুমের উদ্দেশ্যে পাঠানো হয়েছে। সকাল নয়টার দিকে স্থানীয়রা যুবকের মরদেহ দেখে থানায় খবর দিলে পুলিশ তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরহেদটি উদ্ধার করে। এসময় সাথে থাকা মোবাইল সিমের মাধ্যমে জানতে পারেন হতভাগ্য যুবকের বাড়ি মাদারীপুরের শিবচর উপজেলায়। তবে তার নাম জানতে পারেননি।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দশটার দিকে হিজলা উপজেলার মেঘনা নদীর বালুচর থেকে এক শিশু, এক নারী ও এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে ওইদিন বিকেলে বাকেরগঞ্জ উপজেলার কাটাদিয়া নদী থেকে এক কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া মরদেহগুলো শুক্রবার সকালে মাদারীপুরের পাঁচ্চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কন্ট্রোল রুমে পাঠানো হয়েছে।

এর পূর্বে বৃহস্পতিবার দুপুরে তিনজন ও বুধবার তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এরমধ্যে জাকির হোসেন (২৭) নামের একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। জাকির জেলার বাকেরগঞ্জ উপজলার কৃষ্ণকাঠী গ্রামের আব্দুল হামিদ মিয়ার পুত্র।

পুলিশ সুপার আরো জানান, লাশের সন্ধানের জন্য বরিশালের প্রতিটি নদীতে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের পক্ষ থেকে বিশেষ টহল অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Tags

আরও সংবাদ...

Back to top button