গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে ইউপি সদস্য স্বামীর বিরুদ্ধে পুত্র হত্যার অভিযোগে স্ত্রীর মামলা

ইউপি সদস্য পিতার বিরুদ্ধে তার নয়দিনের নবজাতক পুত্রকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করেছেন নবজাতকের মা। ঘটনাটি বরিশাল জেলার গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম বেজহার গ্রামে। বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালত মামলাটি নথিভূক্ত করার জন গৌরনদী থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেনকে নির্দেশ দেন।

উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামের মৃত নুর ইসলাম খানের কন্যা রেশমা বেগম জানান, একই উপজেলার পশ্চিম বেজহার গ্রামের মৃত জাকির হোসেনের পুত্র মাহিলাড়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের সাথে তার দীর্ঘদিন পূর্বে রেজিষ্ট্রি কাবিনমূলে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তিনি জানতে পারেন কামাল হোসেনের আগেও একটি বিয়ে রয়েছে। তিনি আরো জানান, বিয়ের পর সে (রেশমা) অন্তঃস্বত্তা হয়ে পরেন। একপর্যায়ে গত ১৪ মার্চ ইউপি সদস্য কামাল হোসেন তাকে বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। ওইদিন গভীর রাতেই সিজার অপারেশনের মাধ্যমে তার (রেশমার) একটি পুত্র সন্তান জন্মগ্রহণ করে। রেশমা বেগম অভিযোগ করেন, হাসপাতাল থেকে তার স্বামী কামাল হোসেন ও তার সতীন রেকসোনা বেগম তাকে বাড়িতে নিয়ে আসেন।

গত ২৩ মার্চ ভোররাতে তারা পরিকল্পিত ভাবে নবজাতক শিশু পুত্রকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে তড়িঘড়ি করে দাফন করেন। এতে তিনি আরো অসুস্থ্য হয়ে পরেন। পরবর্তীতে সুস্থ্য হয়ে বিষয়টি তিনি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানালে কামাল তাকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি প্রদর্শণ করেন। উপায়অন্তুর না পেয়ে অসহায় রেশমা বেগম থানায় মামলা দায়ের করতে গেলে বিলম্বের কারনে পুলিশ মামলা না নিয়ে আদালতে মামলা করার পরামর্শ দেন।

বরিশাল জজ কোর্টের আইনজীবী মো. ইউসুফ সালাম জানান, উল্লেখিত ঘটনার বিচার প্রার্থণা করে বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল বিজ্ঞ আমলী আদালতে লিখিত আবেদন করার পর ম্যাজিষ্ট্রেট মামলাটি এজাহার হিসেবে গ্রহণের জন্য গৌরনদী থানার ওসিকে নির্দেশ প্রদান করেছেন।

অভিযোগের ব্যপারে কামাল হোসেনের কাছে জানতে চাইলে হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, কম সময়ে (৭ মাসে) সন্তানটি ভূমিষ্ট হওয়ায় স্বাভাবিকভাবে মারা যায়। হত্যার অভিযোগ সঠিক নয়। মামলা সম্পর্কে আমি অবহিত নই।

গৌরনদী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাজ্জাদ হোসেন এ প্রসঙ্গে বলেন, আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরও সংবাদ...

Leave a Reply

Back to top button