গৌরনদী সংবাদ

নিহত কবিতা আক্তারের বান্ধবী গ্রেপ্তার – পরিবারের দিকে সন্দেহের তীর

গৌরনদী পৌরসভার সুন্দরদী গ্রামের কবিতা আক্তার (১৩) নামে এক স্কুল ছাত্রীর রশি দিয়ে হাত-পা বাধা অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মঙ্গলবার রাতে পুলিশ নিহতের বান্ধবী সোনাই আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে। গতকাল বুধবার তাকে বরিশাল জেল হাজতে প্রেরন করেছে।

গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আলাউদ্দিন মিলন জানান, টরকী বন্দর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী কবিতা আক্তারের সাথে একই উপজেলার ধানডোবা গ্রামের লাল মিয়া চকিদারের পুত্র কালু চকিদারের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। দেড় মাস পূর্বে প্রমের টানে কালু চকিদারের সাথে কবিতা আক্তার পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে উভয় পক্ষের আত্মীয়দের মধ্যস্থায় কবিতাকে বাবার কাছে ফেরত দেয়।arrest-greftar

প্রেমিক কালুর পরিবার ও স্বজনদের অনেকেই জানান, কবিতা আক্তারের সাথে কালু দীর্ঘ দিন প্রেম করে আসছিল। যে কারনে মেয়েটি বাবার বাড়ি থেকে তার প্রেমিকের কাছে যাওয়ার জন্য একাধিকবার ছুটে এসেছেন। সেখানে প্রেমিক কর্তৃক প্রেমিকাকে হত্যা করা সম্ভব নয়। পরিবারটিকে হয়রানী করতে ও বোনের প্রতি বিরাগভাজন হয়ে নিহতদের পরিবারের সদস্যরা এ কাজ করতে পারে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রশাসনের একটি সূত্র জানান, প্রাথমিক তদন্তে কবিতা আক্তার হত্যার ঘটনা রহস্যজনক। বিভিন্ন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী পরিবারের প্রতি সন্দেহের তীর রেখেই কবিতা হত্যার মামলাটি তদন্ত করা হচ্ছে। ওই সূত্র আশা প্রকাশ করেন, খূব শীঘ্রই হত্যার রহস্য ও জড়িতদের নাম শনাক্ত করা যাবে।

গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আলাউদ্দিন মিলন জানান, নিহত কবিতা আক্তারের সাথে কালুর প্রেমের সম্পর্ক গড়তে সহযোগীতাকারী কবিতার ঘনিষ্ঠবান্ধবী সোনাই আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। বুধবার তাকে বরিশাল জেল হাজতে প্রেরন করেছে।

উল্লেখ্য এ ঘটনায় নিহতের পিতা আইনুল হক বাদি হয়ে গৌরনদী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

আরও সংবাদ...

One Comment

  1. কবিতা আক্তার হত্যার ঘটনা রহস্যজনক ।তবে আমরা এই হত্যার সঠিক বিচার চাই।

Leave a Reply

Back to top button