গৌরনদী সংবাদ

স্ত্রীকে নির্যাতনকারী পাষন্ড স্বামী জেল হাজতে

দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না পেয়ে গভীর রাতে দুই সন্তানের জননী এক গৃহবধূকে শিকল দিয়ে বেঁধে লোহার গরম রড ও খুনতি দিয়ে শরীরের বিভিন্নস্থানে ছ্যাকা দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনকারী পাষন্ড স্বামী বাদল মৃধাকে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বরিশালের গৌরনদী মডেল থানার এসআই তরিকুল ইসলাম অভিযান চালিয়ে ডিএসবির হাট এলাকা থেকে বাদল মৃধাকে গ্রেফতার করেছে। শুক্রবার দুপুরে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে বরিশাল আদালতের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় জেল হাজত প্রেরণ করেছে।

সূত্রমতে, উজিরপুর উপজেলার শোলক ইউনিয়নের যুগীহাটি গ্রামের আজিজ হাওলাদারের কন্যা তাসলিমা বেগমের সাথে দীর্ঘদিন পূর্বে গৌরনদীর মাহিলাড়া ইউনিয়নের শরিফাবাদ গ্রামের মৃত ওহাব আলী মৃধার পুত্র প্রটকল (ভাড়ায় মোটরসাইকেল) চালক বাদল মৃধার বিয়ে হয়। বিয়ের পর নছিমন ক্রয়ের জন্য তাসলিমার বাবা ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দেন। পরবর্তীতে ১ লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য প্রায়ই তাছলিমা শারীরিক ও মানসিক নিযার্তন করে আসছে।

মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে বাদল মৃধা ও তার পরিবারের সদস্যরা পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে গৃহবধূ তাসলিমা বেগমকে শিকল দিয়ে বেঁধে লোহার গরম রড এবং খুনতি দিয়ে শরীরের বিভিন্নস্থানে ছ্যাকা দেয়ার পর ক্ষতস্থানে লবন ও মরিচের গুড়া ছিটিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে। বুধবার ভোরে মুর্মুর্ষ অবস্থায় গৃহবধূ তাসলিমা বেগমকে (২৮) তার বাবার বাড়ির লোকজনে উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার নির্যাতিতা গৃহবধূর মা জাহানারা বেগম বাদি হয়ে বাদল মৃধা ও তার ছোটভাই লালমিয়া মৃধাকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন।

আরও সংবাদ...

Back to top button