বরিশাল

পিরোজপুরে তেল পাচারকালে ২০জনকে আটক করেছে কোষ্টগার্ড

তেল পাচার কালে পিরোজপুরের কাউখালী থেকে ২০ জনকে আটক করেছে কোষ্টগার্ড। বুধবার রাতে কাউখালীর কচা নদী থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

এমটি রাশেদ এন্টারপ্রাইজ নামের তেলের জাহাজটি বর্তমানে বরিশালের কীর্তনখোলা নদীতে অবস্থান করছে।

আটককৃতরা হলো, তেল চোরাই চক্রের সদস্য কাউখালী কচুয়াকাঠি গ্রামের আনছার উদ্দিন ও মো. জাহাঙ্গীর, দাসেরকাঠি গ্রামের আ. সালাম, কুমিয়ান গ্রামের মো. ফারুক এবং জাহাজের ষ্টাফ শহীদুল ইসলাম, মো. শফি, মো. রাজু, মো. মহসীন, নূরে আলম, জিয়াউর রহমান, মো. সাঈদ, আ. সামাদ, সেকান্দার ভূইয়া, দিদারুল ইসলাম, মো. শাহীন, মো. নাসিরউদ্দিন, মো. সুমন, মো. ফারুক, মো. শাহীদুজ্জামান ও মাসুদুর রহমান।

কোষ্টগার্ড দক্ষিণ জোনের স্টাফ অফিসার লে. ইফতেখার হোসেন জানান, গোপন খবরের ভিত্তিতে বুধবার সন্ধ্যায় কচা নদীর কাউখালী লঞ্চ অবস্থান নেয় কোষ্টগার্ডের একটি দল।

জাহাজ থেকে তেল পাচার শুরু হলে তাদেরকে হাতেনাতে আটক করা হয়। একই সাথে পাচারকাজে ব্যবহৃত একটি ট্রলার ও ৩৫টি তেলে ড্রাম আটক করা হয়। এর মধ্যে ১৭টি ড্রাম তেল বোঝাই ছিল।

লে. ইফতেখার হোসেন আরো জানান, চট্টগ্রাম থেকে খুলনাগামী এমটি রাশেদ এন্টারপ্রাইজ নামের জাহাজটিতে ১৬ লাখ ৭৩ হাজার লিটার ডিজেল ছিল।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে বরিশালে কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আরও সংবাদ...

Back to top button