আর্কাইভ

গৌরনদীতে স্কুল ছাত্রের আত্মহত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক লালনকে বরখাস্ত

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ অবশেষে আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার মেদাকুল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অভিযুক্ত শিক্ষক রফিকুল ইসলাম লালনকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরী বলেন, আমি উপজেলা শিক্ষা অফিসার রফিকুল ইসলামকে সরেজমিনে গিয়ে তদন্তপূর্বক অভিযুক্ত শিক্ষককের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলি। উপজেলা শিক্ষা অফিসার রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি সরেজমিনে তদন্ত শেষে অভিযুক্ত শিক্ষক রফিকুল ইসলাম লালনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা শিক্ষা অফিসারের কাছে আবেদন করি। বিকেল চারটার দিকে জেলা শিক্ষা অফিসার শাহ আলম শিক্ষক লালনকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য লিখিত ভাবে নিদের্শ দেন।

অপরদিকে অভিযুক্ত শিক্ষককে রক্ষার জন্য একটি প্রভাবশালী মহল মরিয়া হয়ে উঠেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটার দিকে মাদারীপুর মর্গে চতুর্থ শ্রেনীর ছাত্র নাঈমের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। মর্গ থেকে তার পিতা এস্কেন্দার সরদার লাশ গ্রহণ করেন। বিকেলে জানাজা শেষে নাঈমের লাশ পারিবারিক গোরস্তানে দাফন করা হয়। নাঈমের জানাজায় সর্বস্তরের জনসাধারন উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র নাঈম সরদারসহ আরো দু’শিক্ষার্থী বাংলা ক্লাশে পড়া না পারার অপরাধে স্কুলের সহকারি শিক্ষক রফিকুল ইসলাম লালন তাদের তিনজনকে বাথরুমে আটক করে রেখে শাস্তি প্রদান করে। এ ঘটনার পর তাদের সহপাঠীরা উপহাস করে। এতে অভিমান করে বুধবার নাঈম গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »