আর্কাইভ

বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে ফ্লাইট বাড়াচ্ছে ইউনাইটেড

বিশেষ প্রতিনিধি ॥  যাত্রী চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে আগামী ১ জুন থেকে সাপ্তাহিক ফ্লাইট সংখ্যা বাড়াচ্ছে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ। এরফলে বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে এয়ারলাইন্সটির ফ্লাইট সংখ্যা সপ্তাহে চারটিতে উন্নীত হবে।

ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ (বিডি) লিমিটেডের এজিএম-মার্কেটিং (সাপোর্ট এন্ড পিআর) মোঃ কামরুল ইসলাম জানান, আগামী ১ জুন থেকে প্রতি শনি, রবি, বুধ ও বৃহস্পতিবার ঢাকা-বরিশাল রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করবে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ। এরআগে গত ২৫ এপ্রিল বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে আনুষ্ঠানিকভাবে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ। প্রাথমিক পর্যায়ে সেসময় সপ্তাহে দু’দিন রবি ও বৃহস্পতিবার ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। ৩৭ ও ৬৬ আসনের দু’টি ফ্লাইটের প্রতিটি আসনের ভাড়া নির্ধারন করা হয়েছে ৩ হাজার টাকা করে।

উল্লেখ্য, ১৯৯২-৯৩ অর্থবছরে প্রায় ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয় ১০০ ফুট প্রশস্ত ও ৬ হাজার ফুট দীর্ঘ বরিশাল বিমানবন্দর। ১৯৯৫ সনের ৩ ডিসেম্বর ঢাকা-বরিশাল আকাশপথে জাতীয় পতাকাবাহী বিমান চলার মাধ্যমে এ বিমানবন্দরের কার্যক্রম শুরু হয়। ২০০৬ সনের শেষের দিকে লোকসানের অজুহাত দেখিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয় জাতীয় পতাকাবাহী বিমান চলাচল। পরবর্তীতে এয়ার পারাবাত ও জিএমজি এয়ারলাইনস ঢাকা-বরিশাল আকাশপথে চলাচল করলেও তাও লোকসানের অজুহাতে একসময় বন্ধ হয়ে যায়। সর্বশেষ ২০০৮ সনের ২৮ সেপ্টেম্বর চালু হয় ৩৭ সিটের বেসরকারি সংস্থার ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের ফ্লাইট। তাও লোকসানের অজুহাতের কারণে ২০০৯ সনের ৫ মে বন্ধ করে দেয়া হয়। সেই থেকে কোন উড়োজাহাজ বরিশাল বিমানবন্দরের রানওয়ে স্পর্শ করেনি। এরইমধ্যে গত ২৫ এপ্রিল বরিশাল-ঢাকা আকাশপথে ফের আনুষ্ঠানিকভাবে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »