আর্কাইভ

বরিশালে প্রতিমণ ধানের মূল্য এক’শ টাকা

বিশ্বজিত সরকার বিপ্লব ॥  অবিশ্বাশ্য হলেও সত্য বরিশালে এক মণ ধানের বিক্রয় মুল্যে মাত্র এক’শ টাকা। মহাসেন থেকে শুরু করে অব্যাহত প্রবলবর্ষণ আর জোয়ারের পানি বৃদ্ধির কারণে এবার ইরি-বোরো ধান ঘরে তুলতে পারেননি বরিশাল জেলার বিভিন্ন উপজেলার অধিকাংশ কৃষকেরা। ফলে পাকা ধান ক্ষেতেই নষ্ট হয়ে গেছে। আর যাওবা ঘরে তোলা হয়েছে তাও রোদের অভাবে পঁচে নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে নষ্ট হওয়া ধানের গন্ধে অতিষ্ট হয়ে কৃষকেরা এলাকার মৎস্য খামারীদের কাছে (মাছের খাদ্য হিসেবে) মাত্র এক’শ টাকা দরে প্রতিমণ ধান বিক্রি করে দিচ্ছেন।

জেলার আগৈলঝাড়া, গৌরনদী, মুলাদী ও বাবুগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে খোঁজ নিয়ে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে। গৌরনদীর গেরাকুল গ্রামের কৃষক হেলাল মিয়া, বাচ্চু শরীফ, হানিফ বেপারী, নুর আলম সরদারসহ একাধিক কৃষকেরা জানান, পঁচে যাওয়া ধান নিয়ে তারা চরম বিপাকে পরার ফলে প্রতিমন এক’শ টাকা দরে মাছের খাবার হিসেবে খামারীদের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন।

আগৈলঝাড়ার মোল্লাপাড়া গ্রামের প্রবীর বিশ্বাস, রবিন্দ্রনাথ হালদার, রাজিহার গ্রামের তপন বসুসহ অনেকেই জানান, অব্যাহত বৃষ্টির কারণে এখনো তাদের বহু জমির ধান কাটা হয়নি। সেসব ফসল জমিতেই নষ্ট হয়ে আবার চারা গজিয়েছে। আক্ষেপ করে কৃষকেরা বলেন, এবার ইরি ধানের ফলন ভালো হওয়া সত্বেও তা তাদের ভোগ করার সুযোগ হয়নি। সূত্রে আরো জানা গেছে, গ্রামের কিছু কিছু গৃহীনিরা প্রাপ্ত ভিজা ধান চুলায় টেলে (ভেঁজে) তা শুকানোর চেষ্টা করছে। তবে এ ধান থেকে প্রাপ্ত চালের ভাত খাওয়া যাচ্ছেনা।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »