আর্কাইভ

আগৈলঝাড়ায় যৌতুকের দাবিতে অন্তঃস্বত্তা স্ত্রীকে নির্যাতন

প্রবীর বিশ্বাস ননী, আগৈলঝাড়া ॥  এক লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে পাঁচ মাসের অন্তঃস্বত্তা স্ত্রীকে অমানুষিক নির্যাতন করে পুকুরের পানিতে চুবিয়ে হত্যার চেষ্টার ঘটনায় পুলিশ পাষন্ড স্বামীকে গ্রেফতার করে আজ বুধবার দুপুরে আদালতে সোর্পদ করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার ছয়গ্রাম এলাকায়।

পুলিশ জানায়, উপজেলার ছয়গ্রামের গনি আকনের পুত্র জসিম আকনের সাথে গত ছয় বছর পূর্বে সামাজিক ভাবে বিয়ে হয় গৌহার গ্রামের আলমগীর মৃধার কন্যা লিজার। বিয়ের সময় বর পক্ষের দাবিকৃত ৫০ হাজার টাকা যৌতুক পরিশোধ করা হয়। বিয়ের কয়েক বছর যেতে না যেতেই আরো এক লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে পাষন্ড স্বামী জসিম ও তার পরিবারের লোকজনে। এ জন্য প্রায়ই গৃহবধূ লিজাকে মারধরসহ আমানুষিক নির্যাতন করা হতো। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুনরায় যৌতুকের দাবিতে জসিম তার অন্তঃস্বত্তা স্ত্রী লিজা বেগমকে অমানুষিক নির্যাতন করে বাড়ির পুকুরে ফেলে চুবিয়ে হত্যার চেষ্ঠা চালায়। এসময় লিজার আত্মচিৎকারে পাশ্ববর্তী বাড়ির লোকজন এগিয়ে এসে মুর্মুর্ষ অবস্থায় লিজাকে উদ্ধার করে আগৈলঝাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় লিজার পিতা আলমগীর মৃধা বাদি হয়ে ওইদিন রাতে থানায় যৌতুক, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে লিজার পাষন্ড স্বামী জসিম আকনকে গ্রেফতার করে। গতকাল বুধবার দুপুরে গ্রেফতারকৃতকে বরিশাল আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার সুজনকাঠী গ্রামে পুকুরে ডুবে ইয়াসিন সরদার নামের দু’বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে ওই গ্রামের হাকিম সরদারের শিশুপুত্র ইয়াসিন সবার অজান্তে ঘরের সম্মুখের পুকুরে পরে যায়। অনেক খোঁজাখুজির পর বাড়ির লোকজনে পুকুরে ভাসমান অবস্থায় ইয়াসিনের লাশ লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ওই এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বাল্য বিয়ের অপরাধে কনের পিতা গ্রেফতার
ষষ্ঠ শ্রেণীর স্কুল পড়–য়া নাবালিকা কন্যাকে না জানিয়ে বিয়ে দেয়ার ঘটনায় কনের পিতা ইস্কেন্দার আলীকে আজ বুধবার সকালে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় উপজেলার ভালুকশি গ্রামে। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর বড় বোন বাদি হয়ে বাবার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ জানায়, ওই গ্রামের ইস্কেন্দার আলী মোল্লার কন্যা ভালুকশি জুনিয়ার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী রেশমা আক্তারের (১১) অমতে তার পিতা জোরপূর্বক গত ১৩ মে পার্শ্ববর্তী কালকিনি উপজেলার পাথরিয়ারপাড় গ্রামের ছিদ্দিক হাওলাদারের পুত্র ফিরোজ হাওলাদারের সাথে বিয়ে দেয়। এ ঘটনায় রেশমা ও তার বোনেরা প্রতিবাদ করায় ইস্কেন্দার আলী ও তার সহযোগীরা রেশমাকে মারধর করে জোরপূর্বক রেশমাকে তার স্বামীর হাতে তুলে দেয়ার চেষ্ঠা চালায়। এসময় কৌশলে রেশমা বাড়ি থেকে আত্মগোপন করে। এ ঘটনায় রেশমার বড় বোন নুরনন্নেছা বাদি হয়ে আগৈলঝাড়া থানায় পিতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। আজ বুধবার সকালে থানা পুলিশ ইস্কেন্দার আলীকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরন করেছেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »