আর্কাইভ

সিটি নির্বাচন : বরিশালে অধিকার আদায়ে লড়ছেন ৫৪জন নারী

হাসান মাহমুদ, বিশেষ প্রতিনিধি ॥  নারীনিতীর বিরোধীতাকারী কতিপয় ভূঁইভোর সংগঠনকে বৃদ্ধাঅঙ্গুলী দেখিয়ে অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের মাঠে লড়ছেন ৫৪ জন নারী নেত্রী। নির্বাচনের শুরু থেকে তিনজন মেয়র ও সাধারন কাউন্সিলর পদপ্রার্থীদের পাশাপাশি নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডের মধ্যে ১০টি সংরক্ষিত আসনে ৪৭ জন এবং সাধারন কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হিসেবে পুরুষ প্রার্থীদের সাথে সরাসরি প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন সাতজন নারী নেত্রী। কাক ডাকা ভোর থেকে রাত পর্যন্ত বিরামহীন ভাবে চলছে এসব নারী প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারনা ও গণসংযোগ। ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে তারা শেষ সময়ে ভোট প্রার্থনা করে যাচ্ছেন। এদেরমধ্যে বিগতদিনে চার জন নারী পুরুষ প্রার্থীদের পরাজিত করে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন।

বিশেষ করে আয়শা তৌহিদা লুনা গত নির্বাচনে কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ার পর কাউন্সিলদের ভোটে প্যানেল মেয়র পর্যন্ত নির্বাচিত হয়েছিলেন। এবার তিনি ১১নং ওয়ার্ড থেকে প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন। এছাড়া নগরীর ১৯, ২০ ও ২১ নং ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ৭নং ওয়ার্ডের দু’বারের পরাজিত (দ্বিতীয়স্থানে থাকা) কাউন্সিলর পদপ্রার্থী নার্স (সেবিকা) নাছিমা বেগম এবারও সেলাই মেশিন মার্কা নিয়ে প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন। মা প্রার্থী বাবা নুরুল হুদা নান্নু দিনমজুরের কাজে গেছেন। তাই প্রচার-প্রচারনা ও গণসংযোগে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন নাছিমা বেগমের কন্যা গৃহিনী মেহেরুন নেছা মৃদুয়া ও স্কুল ছাত্রী জান্নাতুল মাওয়া ঋতু। প্রার্থী নাছিমা বেগম বলেন, আমি একজন সেবিকা তাই জীবনের শেষ সময়ে সংরক্ষিত সাত নং ওয়ার্ডবাসীর সেবা করে যেতে চাই। তিনি আরো বলেন, আমি গরিব প্রার্থী হওয়ায় প্রতিদ্বন্ধী ছয়জন প্রার্থীর মতো অর্থের বিনিময়ে অন্যকোন কর্মী নিয়োগ করতে পারিনি। তাই মেয়েদের নিয়েই কর্মীর কাজ করছি।

হাসানাতের চমক

জাতীয় সংসদের সাবেক চীফ হুইপ ও বরিশাল জেলা আ’লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ মহাজোট সমর্থিত সম্মিলিত নাগরিক কমিটির মেয়র পদপ্রার্থী আলহাজ্ব শওকত হোসেন হিরনের টেলিভিশন মার্কার পক্ষে শনিবার থেকে গণসংযোগে নেমেছেন। নির্বাচনী মাঠে তিনি গণসংযোগের নামার পর পরই পাল্টে গেছে পুরো নগরীর দৃশ্যপট। সাধারন ভোটার থেকে শুরু করে দলের নেতা-কর্মীদের মাঝে ফিরে এসেছে প্রাণচাঞ্চল্য। হাসানাত আব্দুল্লাহ গণসংযোগে নামার পর টেলিভিশনের আকর্ষণ বৃদ্ধি পাওয়ায় আতংকিত হয়ে পরেছেন প্রতিপক্ষের মেয়র প্রার্থী ও তাদের সমর্থকেরা। আজ রবিবারও দিনভর নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেন তিনি। এসময় তার সাথে অন্যান্যদের মধ্যে মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব শওকত হোসেন হিরন, আব্দুর রহমান-এমপি, এ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস-এমপি, আব্দুল্লাহ আল জ্যাকব-এমপি, নুর নবী শাওন-এমপি, অগ্রনী ব্যাংকের পরিচালক ও আ’লীগ নেতা এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, বাংলাদেশ বাস ট্রাক এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আলী খবির চাঁন, চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি সাইদুর রমান রিন্টু, আ’লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহসম্পাদক খলিলুর রহমান, জোবায়দুল রাসেল, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কমান্ডের আহবায়ক সৈকত গুহ পিকলুসহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

 

কামালের ২২ দফা ইশতেহার ঘোষণা

বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট সমর্থিত জাতীয়তাবাদী নাগরিক পরিষদের মেয়র পদপ্রার্থী আহসান হাবিব কামাল গতকাল রবিবার ২২ দফা নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন। আসন্ন নির্বাচনে তিনি মেয়র নির্বাচিত হলে বরিশালকে বাণিজ্যিক নগরী হিসেবে গড়ে তোলা, নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন, বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান, নগরীর সৌন্দর্যবর্ধনসহ বিভিন্ন পরিকল্পনা ইশতেহারে তুলে ধরা হয়। বরিবার দুপুরে নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন হলের মিয়নায়তনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় কামাল তার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেন। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বরিশালে সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে পুলিশ বিভাগে রদবদল ও সিটি নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবি জানান। বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির সভাপতি মজিবর রহমান সরোয়ার-এমপি’র সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন মেয়রপ্রার্থী আহসান হাবিব কামাল, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অবঃ) হাফিউদ্দিন আহমেদ-বীর বিক্রম, বেগম সেলিমা রহমান, কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম খান রাজন, বরিশাল দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক এবায়েদুল হক চাঁন প্রমুখ।

প্রিসাইডিং অফিসার ও পোলিং এজেন্টদের প্রশিক্ষণ

আগামী ১৫ জুন বিসিসি’র নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রগুলোতে দায়িত্ব পালনকারী প্রিসাইডিং, সহকারী প্রিসাইডিং ও পোলিং এজেন্টদের দু’দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা শনিবার সন্ধ্যায় সম্পন্ন হয়েছে। সুষ্ঠুভাবে ও নির্ভুল দায়িত্ব পালনের জন্য নির্বাচন কমিশন এ কর্মশালার আয়োজন করে। রিটার্নিং অফিস সূত্রে জানা গেছে, নগরীর এক’শটি ভোটকেন্দ্রে এক’শ জন প্রিসাইডিং ও ৩০৭ জন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার, ৬১৪ জন পোলিং এজেন্টকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

বিএমপি’র উপ-কমিশনারকে প্রত্যাহারের দাবি

বিসিসি’র নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার জন্য বরিশাল মেট্রো পলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) শোয়েব আহমেদকে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন মেয়র পদপ্রার্থী আলহাজ্ব শওকত হোসেন হিরন। শনিবার রাতে রিটার্নিং অফিসার মোঃ মুজিবুর রহমান জানান, উপ-পুলিশ কমিশনারকে প্রত্যাহারের জন্য মহাজোট সমর্থিত সম্মিলিত নাগরিক কমিটির মেয়র পদপ্রার্থী শওকত হোসেন হিরনের নির্বাচনী এজেন্ট এ্যাডভোকেট কেবিএস আহমেদ কবির লিখিত আবেদন করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »