আর্কাইভ

হেফাজত ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে এগিয়ে গেল বিএনপি

বিশেষ প্রতিনিধি, বরিশাল থেকে ॥  ব্যক্তি হিসেবে হিরণ ভাই খুব ভালো লোক, হ্যায় অনেক উন্নয়নও করছে, মোরা করি বিএনপি, হ্যার পরেও হিরণ ভাইরে ভোট দিতাম, কিন্তু দ্যাহেন নাই ঢাকায় হুজুরগো লগে কতো গ্যানজাম হইছে। য্যারা হুজুরগো মারতে পারে, হেই দলরে মোরা কোনদিনই ভোট দিতে পারি না।

 
শনিবার রাত নয়টার দিকে বরিশাল নগরীর র্গীজা মহল্লা এলাকায় বসে কথাগুলো বলছিলেন, নগরীর রসুলপুর বস্তির বাসিন্দা জাহানারা বেগম। একথা শুধু জাহানারার একারই নয়; প্রায় একই ভাবে বললেন, নগরীর পলাশপুর বস্তির বাসিন্দা নাসির উদ্দিন, এনায়েত হোসেনসহ অনেকেই। ঢাকায় হেফাজত ইসলামের সাথে সংঘর্ষের ঘটনার ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে নিরবে প্রচার-প্রচারনার মাধ্যমে বরিশাল সিটি নির্বাচনে এগিয়ে গেছেন বিএনপির প্রার্থী আহসান হাবিব কামাল।

অপর একটি সূত্রে জানা গেছে, বরিশালে দীর্ঘদিন ধরেই বিএনপির ভোট ব্যাংকের চাবি সদর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ারের হাতে। স্থানীয় দলীয় কোন্দল ভুলে সিটি নির্বাচনকে সামনে রেখে দীর্ঘদিনের বিরোধ মিটিয়ে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া একক মেয়র প্রার্থী হিসেবে সিটি কর্পোরেশনের প্রথম প্রশাসক আহসান হাবিব কামালকে মনোনীত করেন। ফলে সরোয়ার-কামাল ও এবায়দুল হক চাঁন বিরোধ ভুলে একত্রিত হয়ে নির্বাচনের মাঠে নামায় বিএনপির ভোট ব্যাংকে আঘাত হানতে পারেননি আওয়ামীলীগের প্রার্থী ও তার সমর্থকেরা।

সেক্ষেত্রে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী শওকত হোসেন হিরণের বিরোধীতা করে বিদ্রোহী প্রার্থী হন মহানগর যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক মাহমুদুল হক খান মামুনকে। অবশ্য এজন্য তাকে দল থেকে বহিস্কারও করা হয়। কিন্তু রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, সাধারন ভোটাররা এক দলে দু’প্রার্থীকে সহজ ভাবে মেনে নিতে পারেননি। অপর একটি সূত্র জানিয়েছে, বিদ্রোহী প্রার্থী মামুন নিজের পক্ষে ভোট চাওয়ার বিপরীতে আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত মেয়র প্রার্থী শওকত হোসেন হিরণের বিরুদ্ধে ভোটের মাঠে অপপ্রচার চালিয়েছেন বেশি। যে কারনেও ভোটারদের মাঝে নানা প্রশ্নেরও সৃষ্টি হয়েছে।

শনিবার রাত দশটায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বরিশালের ৩০টি ওয়ার্ডের ১’শ টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৭৫ টি কেন্দ্রের ফলাফল পাওয়া গেছে। এতে বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী নাগরিক পরিষদের মেয়র প্রার্থী আহসান হাবিব কামাল (আনারস) পেয়েছেন ৬০ হাজার ৬৬১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ১৪ দল সমর্থিত সম্মিলিত নাগরিক কমিটির প্রার্থী ও সদ্য বিদায়ী মেয়র শওকত হোসেন হিরন (টেলিভিশন) পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৫৮২ ভোট।

স্থানীয় বিএনপির এক প্রভাবশালী নেতা জানান, সব মিলিয়ে তারা ১৫ থেকে ২০ হাজার ভোট বেশি পেয়ে বিজয়ী হবেন। শনিবার রাত নয়টা থেকেই নগরীর বিভিন্ন এলাকায় খন্ড খন্ড ভাবে বিজয় উল্লাস শুরু করেছে আনারস মার্কার সমর্থকেরা।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »