আর্কাইভ

জামাতাকে শিকল বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরোচিত নির্যাতন ॥ তিনদিন পর উদ্ধার

তাদের দাম্পত্য কলহ লেগেই ছিলো। সোহাগ হাওলাদার জানান, গত ২৬ জুলাই শশুড় বাড়িতে তাকে দাওয়াত করা হয়। ওইদিন দুপুরে স্ত্রীকে নিয়ে বেড়াতে আসলে তাকে তার স্ত্রী শাবানার ভাই স্বপন সরদারসহ তার ৪/৫ জন সহযোগী প্রথমে মারধর করে। পরবর্তীতে তাকে শিকল দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেঁধে ঘরের মধ্যে তালাবদ্ধ করে হত্যার উদ্দেশ্যে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরোচিত নির্যাতন চালায়। সোহাগ আরো জানায়, হামলাকারীরা এক পর্যায়ে তার কাছ থেকে জোড়পূর্বক তালাক নামায় স্বাক্ষর আদায় করার চেষ্ঠা করে। সে তালাক নামায় স্বাক্ষর না দেয়ায় নির্যাতন আরো বাড়িয়ে দেয়া হয়।
গোপন সংবাদর ভিত্তিতে খবর পেয়ে গতকাল বুধবার বিকেল তিনটার দিকে সোহাগের পিতা সাইদুল হাওলাদার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। থানায় এএসআই শাহাবুদ্দিন আহম্মেদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ বিকেল সাড়ে তিনটায় অভিযান চালিয়ে শিকল বাঁধা অবস্থায় সোহাগকে উদ্ধার করে। গৌরনদী থানার ডিউটি অফিসার এস.আই শাহজাহান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আরও পড়ুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button
Translate »