গৌরনদী সংবাদ

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে কিন্ডার গার্টেনে হামলা ভাঙচুর ॥ শিক্ষার্থীসহ আহত-১০

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে বুধবার সকালে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার টরকীচর গ্রীণ কিন্ডার গার্টেনে প্রতিপক্ষর ভাড়াটিয়া লোকজন কমান্ডো ষ্টাইলে হামলা চালিয়েছে। এ সময় স্কুলের দশটি কক্ষের আসবারপত্র ভাঙচুর করে মালামাল লুট করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলাকারীদের হামলায় তিন শিক্ষক, পাঁচ শিক্ষার্থীসহ অন্তত দশ জন আহত হয়েছে। সন্ত্রাসী হামলার কারণে বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষনার অনুষ্ঠান পন্ড হয়ে যায়।

এলাকাবাসি, আহত ও পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, গৌরনদী উপজেলার টরকীচর মৌজার ১১ নং খতিয়ানে ১০৬ নং দাগের ৫০ শতক জমি নিয়ে একই মৌজার আবুল হোসেন ওরফে আবুল হাজীর সাথে স্থানীয় মোশারফ হোসেন সরদারের সাথে দীর্ঘ দিন যাবত বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে বরিশাল আদালতে একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে টরকীচর গ্রীণ কিন্ডার গার্টেন কর্তৃপক্ষ বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষনা চলছিল। মোশারফ হোসেন সরদারের স্ত্রী ও কিন্ডার গার্টেনের পরিচালক সুলতানা রাজিয়া অভিযোগ করে বলেন, ‘প্রতিপক্ষ আবুল হোসেন ও তার পুত্র মাসুদ রানা, জাফর ইকবালের নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন দলের দুই শতাধিক নেতা-কর্মী কমান্ডো ষ্টাইলে হামলা চালায়। হামলাকারীরা স্কুলে প্রবেশ করে বিভিন্ন শ্রেণী কক্ষ ভাঙচুর শুরু করে। এ সময় আমরা বাধা দিলে আমাকেসহ অন্যান্য শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের মারধর করে স্কুল থেকে বের করে দেয়। এসময় সন্ত্রাসীরা একে একে অফিস ও শেণী কক্ষেসহ ১০ টি কক্ষের মালামাল ভ্যানে নিয়ে যায়। হামলাকারীরা পরবর্তীতে পাঁচটি কক্ষে তালাবদ্ধ করে ও অপর পাঁচটিতে তাদের মামলামাল ভর্তি করে দখল করে নয়। ফলে বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষনার অনুষ্ঠান পন্ড হয়ে যায়। মোশারফ হোসেন সরদার অভিযোগ করেন, ঘন্টাব্যাপী হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট করা সময় থানা পুলিশকে অবহিত করা হলে পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেননি। পরবর্তীতে থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে অভিযোগ না গ্রহন করে তাকে ওসি গালমন্দ করেন।’

হামলা, ভাঙচুরের অভিযোগ অস্বীকার করে আবুল হোসেন ওরফে আবুল হাজী বলেন, ‘গত ২০০৭ সালে জনৈক নারর্গিস বেগম ৫ বছরের জন্য স্কুল করার জন্য লিজ নেন। পরবর্তী দুই দফা তার সাথে চুক্তি নবায়ন করা হয়। চুক্তির মেয়াদ শেষে নার্গিসরা অনেক আগেই চলে যান।’

অভিযোগ অস্বীকার করে গৌরনদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, মোশারফকে মালিকার কাগজ পত্র নিয়ে থানায় আসতে বলেছি।’


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply