আর্কাইভ

কাজে যোগদান না করায় দিনমজুরকে পিটিয়ে হত্যা

ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য হামলাকারীরা নিহতের মুখে বিষ ঢেলে এলাকায় আত্মহত্যার কথা রটিয়ে দিয়েছে। এ নিয়ে ওই এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার গভীর রাতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর গ্রামে।

সূত্রমতে, বাটাজোর গ্রামের ব্যবসায়ী বসু শংক বণিকের পানবরজে দক্ষিণপশ্চিমপাড়া গ্রামের রতন ব্যাপারির পুত্র বঙ্কিম চন্দ্র ব্যাপারি (২২) দীর্ঘদিন থেকে মাসিক কামলা (দিনমজুর) হিসেবে কাজ করে আসছিলো। শনিবার কাজে যোগদান না করায় ওইদিন রাত এগারোটার দিকে বসু শংক বণিক মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বঙ্কিমকে তাদের বাড়িতে ডেকে এনে অর্তকিতভাবে তার (বঙ্কিমের) ওপর হামলা চালায়। এলোপাথারি আঘাতে বঙ্কিম জ্ঞানশূণ্য হয়ে পরে। তাৎক্ষনিক বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য বসু ও তার লোকজনে বঙ্কিমের মুখে মুখে বিষ ঢেলে এলাকায় আত্মহত্যার কথা রটিয়ে দেয়। মুর্মুর্ষ অবস্থায় স্থানীয়রা ওই রাতেই বঙ্কিমকে প্রথমে গৌরনদী ও তাৎক্ষনিক বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত্য বলে ঘোষনা করে। খবরপেয়ে বরিশাল কোতয়ালী থানা পুলিশ বঙ্কিমের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছে।

নিহত বঙ্কিমের পিতা রতন চন্দ্র ব্যাপারি অভিযোগ করে বলেন, একদিন কাজে যোগদান না করায় বসু বণিক ও তার লোকজনে আমার পুত্র বঙ্কিমকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় তিনি মামলা দায়ের করবেন বলেও উল্লেখ করেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »