আর্কাইভ

বিএম কলেজে ফের বহিরাগতদের মিছিল

গতকাল রবিবার সকালে মিছিলটি বের করা হয়। পরে বহিরাগতদের প্রতিবাদে ছাত্রলীগ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। এর আগে শনিবারও বহিরাগতরা ক্যাম্পাসে মিছিল করেছে।

জানা গেছে, মেয়াদোত্তীর্ন বাকসুর সাবেক এজিএস আবু জাফর বাদলের ছোট ভাই রেজার নেতৃত্বে ২০/২৫ জন বহিরাগত বখাটেরা সকাল সাড়ে ১০টায় ক্যাম্পাসে আ’লীগের নিপীড়ন নির্যাতনের বিরুদ্ধে মিছিল বের করে। মিছিল শেষে অবস্থা বেগতিক দেখে বহিরাগতরা ক্যাম্পাস ত্যাগ করে। বহিরাগতদের মিছিলের খবর পেয়ে কলেজ শাখা ছাত্রলীগ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। ছাত্রলীগের মিছিলের নেতৃত্ব দেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক মঈন তুষার ও রফিক সেরনিয়াবাত। ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ হুশিয়ারী উচ্চারন করে বলছে কলেজ প্রশাসন বহিরাগতদের প্রতিরোধ করতে না পারলে তারা নিজেরাই তাদের শক্ত হাতে প্রতিরোধ করবে।

অপরদিকে বিএম কলেজ শাখা বাম ছাত্র সংগঠনগুলোও বহিরাগতদের মিছিলের বিষয়টিতে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। কলেজ শাখা ছাত্র ইউনিয়ন নেতা অহিদুজ্জামান অহিদ বলেন, ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের মিছিল করার ঘটনাটি দুঃখজনক। বহিরাগতদের প্রতিরোধে কলেজ প্রশাসনের সতর্ক হওয়া উচিৎ বলে তিনি মন্তব্য করেন।

উল্লেখ্য, শনিবার ক্লাশ চলাকালীন দুপুর সাড়ে ১২টায় বহিরাগত ছাত্রদল ক্যাডার কালু ওরফে নাইড়া কালুর নেতৃত্বে বহিরাগত বখাটেরা ক্যাম্পাসের জিরো পয়েন্টে জরো হয়। এরপর জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ব্যানার সেটে সরকার দলের নিপীড়ন নির্যাতনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন থাকলেও তাদের ভূমিকা ছিল নিরব। মিছিলটি বের হওয়ার পর সাধারন ছাত্ররা কলেজ প্রশাসনকে অবহিত করলে তাদের টনক নড়ে। মিছিল শেষ হওয়ার পর অধ্যক্ষ ড.ননী গোপাল দাসসহ অন্যান্য শিক্ষকরা পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে বের হন। পুলিশের ভূমিকা নিরব থাকায় তাদের সঙ্গে বাকবিতন্ডা করেন কলেজ প্রশাসন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »