আর্কাইভ

হত্যার উদ্দেশ্যে ব্যবসায়ীকে অপহরন ॥ মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার

নির্যাতন চালানো হয়েছে। মুমুর্ষ অবস্থায় পুলিশ ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। গুরুতর আহত ব্যবসায়ী মকবুল হোসেন আকন এখন বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। এ ঘটনায় গতকাল রবিবার বিকেলে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার জেলার গৌরনদী উপজেলার সরিকল ইউনিয়নের প্রত্যন্ত কুরিরচর গ্রামে।

এজাহারে জানা গেছে, কুরিরচর বাজারের সার ডিলার মকবুল হোসেন আকনের (৫০) সাথে একই গ্রামের প্রভাবশালী নুরুজ্জামান বেপারী, নয়ন বেপারী গংদের জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিলো। এরজের ধরে শনিবার সকালে প্রভাবশালী নুরুজ্জামান ও নয়নের নেতৃত্বে তাদের ভাড়াটিয়া ১৫/২০জন সন্ত্রাসী হত্যার উদ্দেশ্যে ব্যবসায়ী মকবুল হোসেনকে অপহরন করে নিয়ে যায়। সন্ত্রাসীরা একই গ্রামের নজরুল বেপারীর নির্জন বাড়িতে নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মকবুলের ওপর চালায় অমানুষিক নির্যাতন। একপর্যায়ে তাকে (মকবুলকে) পুকুরে ফেলে চুবিয়ে হত্যার চেষ্টা চালানো হয়।

খবর পেয়ে সরিকল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এস.আই আলাউদ্দিন হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ রক্তাক্ত জখম অবস্থায় ওইবাড়ির উঠান থেকে ব্যবসায়ী মকবুল হোসেনকে উদ্ধার করে গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ওইদিন রাতেই আহত ব্যবসায়ীকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তার অবস্থা আশংকাজনক।
এ ঘটনায় ব্যবসায়ীর স্ত্রী রিনা বেগম বাদি হয়ে গতকাল রবিবার বিকেলে গৌরনদী থানায় ১৪ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

আহত ব্যবসায়ীর স্ত্রী রিনা বেগম অভিযোগ করেন, প্রভাবশালী প্রতিপক্ষ নয়ন বেপারীর বড়ভাই বর্তমানে ভোলার মনপুরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল হালিম ওরফে সোহেল। ইউএনও’র প্রভাব খাটিয়ে তার ভাইয়েরা এলাকায় নানা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে লিপ্ত রয়েছেন। ইউএনও’র ভাই বলে এলাকার কেহ তাদের প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছেন না।

এ ব্যাপারে গৌরনদী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ নুরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি মামলা গ্রহন করার স্বীকার করে বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
অপহরনের অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত নুরুজ্জামান বেপারী মোবাইল ফোনে বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত দীর্ঘদিনের বিরোধের জেরধরে মকবুল হোসেনের সাথে শনিবার সকালে তাদের বাকবিতন্ডার  একপর্যায়ে উভয়ের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »