আর্কাইভ

একনেকে ৬৬৫৩ কোটি টাকার ১০ প্রকল্প অনুমোদন

দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)৷ এসব পৌরসভার অবকাঠমো উন্নয়নে ব্যয় হবে ১ হাজার ১৫১ কোটি টাকা৷ সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে পৌরসভা উন্নয়নের অর্থ জোগান দেওয়া হবে৷ এর আগে একনেকে ৫৪টি পৌরসভার অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদন হয়৷ এ নিয়ে সরকার দেশের সবকয়টি অর্থাত্ ৩০৮টি পৌরসভার অবকাঠামো উন্নয়নের সিদ্ধান্ত নিল৷

২৫ জানুয়ারি মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভপতিত্বে শেরেবাংলা নগরের এইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়৷ সভায় ৬ হাজার ৬৫৩ কোটি টাকা ব্যয়ের মোট ১০ পি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়৷ এর মধ্যে সরকার নিজস্ব তহবিল থেকে ৬ হাজার ৫৫ কোটি টাকা এবং বাকি ৫৯৮ কোটি টাকা প্রকল্প সহায়তা হিসেবে বিদেশি ঋণ দিয়ে বাস্তবায়ন করা হবে৷ সভাশেষে পরিকল্পনা বিভাগের সচিব মনজুর হোসেন সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান৷ পরিকল্পনা বিভাগ সচিব মনজুর হোসের বলেন, ২৫৪টি পৌরসভার যাতায়াত ব্যবস্থাসহ অবকাঠামোর উন্নয়ন করা হবে৷ তিনি বলেন, এর আগে দুই দফায় ৫৪টি পৌরসভার অবকাঠামো উন্নয়ন কাজ শুরু করেছে সরকার৷ শেষ দফায় ২৫৪ পৌরসভার উন্নয়নে প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে৷

তিনি বলেন, রাজধানী ঢাকার ওপর লোকসংখ্যার চাপ কমাতে এসব পৌরসভার অবকাঠামোসহ সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে৷ একনেক সভায় অনুমোদিত অন্য প্রকল্পগুলো হলো, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীন ১১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে বগুড়া জেলার অন্তরপাড়া, দড়িপাড়া এবং পার্শ্ববর্তী এলাকায় যমুনা নদীর ডান তীরে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ সংরক্ষণ প্রকল্প, স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন ৩১৫ কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে গোপালগঞ্জে এসেনশিয়াল ড্রাগ কোম্পানির তৃতীয় প্লান্ট স্থাপন প্রকল্প, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন ৩ হাজার ৯০০ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রাথমিক শিক্ষার জন্য উপবৃত্তি দ্বিতীয় পর্যায় (দ্বিতীয় সংশোধিত) প্রকল্প, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে চট্টগ্রামের পাঠানটুলি রোড সম্প্রসারণ প্রকল্প, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীন ১৪৮ কোটি টাকা ব্যয়ে মাদারীপুর-চরমুগুরিয়া-টেকেরহাট-গোপালগঞ্জ নৌপথ খনন প্রকল্প, সড়ক ও রেলপথ বিভাগের অধীন ৮৫ কোটি টাকা ব্যয়ে কোটালীপাড়া-রাজৈর সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প এবং একই বিভাগের অধীন ১৭১ কোটি টাকা ব্যয়ে নকলা-নালিতাবাড়ী-নাকুগাঁও স্থলবন্দর সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প৷

এছাড়া উচ্চশিক্ষার গুণগত মান বাড়াতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন ৬৮১ কোটি টাকার একটি প্রকল্প ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চট্টগ্রামের মোটেল সৈকত কম্পাউন্ডে নতুন পর্যটন মোটেল নির্মাণ এবং কক্সবাজারের হোটেল শৈবালের পার্শ্বদিক সম্প্রসারণ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে আজ৷ এ প্রকল্পে ব্যয় হবে ৪৫ কোটি টাকা৷

আরও পড়ুন

Back to top button