আর্কাইভ

আগৈলঝাড়ার ৫টি ইউনিয়নে নির্বাচনের আমেজ

Election 2011নিয়ে চলছে আলোচনা ও সমালোচনার ঝড়। ইতোমধ্যে বাকাল ও গৈলা ইউনিয়নের জনমত যাচাই বাছাইয়ের জন্য ভাবীয়মান ২ প্রার্থী সমাজ নেতৃবৃন্দ ও সর্বদলীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দদের নিয়ে বৈঠকের আয়োজন করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার গৈলা ইউনিয়নের সম্ভ্রাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী ও আগৈলঝাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক ইউসুফ হোসেন মোল্লা আজ বৃহস্পতিবার গৈলা শিশু নিকেতনের সভা কক্ষে ইউনিয়নের বিভিন্ন সমাজপতি ও সাধারণ মানুষের সমন্বয়ে তার পক্ষে জনমত যাচাই-বাছাই করার জন্য এক সভার আয়োজন করেছেন। অন্যদিকে বাকাল ইউনিয়নের জনমত যাচাই-বাছাইর জন্য ৪ ফেব্রুয়ারী উপজেলা সদর মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হল রুমে বিপুল দাস এর আহবানে ইউনিয়নের বিভিন্ন সমাজপতি ও সাধারণ মানুষের সমন্বয়ে তার পক্ষের জনমত যাচাই-বাছাই করার জন্য একই ভাবে একটি সভার আহবান করা হয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছেন। আগৈলঝাড়া উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের ভাবীয়মান ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীরা অনেক পূর্বে থেকেই জনগণের সুখ দুঃখের সাথী হতে শুরু করেছিলেন। উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে বর্তমান সরকার দলীয় প্রার্থীর সংখ্যা বেশী। বিরোধীদলীয় প্রার্থীর সংখ্যা ইউনিয়ন ভিত্তিক সীমিত। বিরোধীদল কেন্দ্রীয়  সিদ্ধান্ত মোতাবেক একক প্রার্থীর জন্য ইতিমধ্যে মাঠে কাজ করছে জনমত যাচাই-বাছাইর জন্য। এরমধ্যে রত্নপুর ইউনিয়নের সম্ভ্রাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে দীর্ঘদিন থেকে মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন সাংবাদিক প্রবীর বিশ্বাস ননী। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, হিন্দু অধুষ্যিত রত্নপুর ইউনিয়নে স্বাধীনতার পরবর্তী সময় থেকে ওই এলাকার হিন্দু সম্প্রাদায়ের লোকজন জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে বরাবরই পিছিয়ে রয়েছেন। তাই তারা এবার তাদের মধ্য থেকে ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত করার জন্য একাযোগে মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন। তাদের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে মাঠ দাপরিয়ে বেড়াচ্ছেন সাংবাদিক প্রবীর বিশ্বাস ননী।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »