আর্কাইভ

রহস্যজনক ভূমিকায় পুলিশ – গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার হুমকি

গৃহবধূ শিল্পী বেগমকে মামলা উত্তোলনের জন্য আগুনে পুড়িয়ে মারার হুমকি দিয়েছে আসামি ও তার লোকজনে। এ ব্যাপারে থানায় সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে। থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট (গ্রেফতারী পরোয়ানা) থাকলেও পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারে রহস্যজনক ভূমিকা পালন করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গৃহবধূ শিল্পী বেগম অভিযোগ করেন, আগৈলঝাড়ার রাজিহার গ্রামের সোনামদ্দিন ফকিরের পুত্র রুবেল ফকিরের সাথে তার দীর্ঘদিন পূর্বে বিয়ে হয়। এরই মধ্যে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ শিল্পীকে শারিরিক নির্যাতনের পর তার বাবার বাড়িতে তাড়িয়ে দেয়া হয়। উপায়অন্তুর না পেয়ে অসহায় শিল্পী বেগম বরিশাল আদালতে স্বামী রুবেল ফকির, তার পিতা সোনামদ্দিন ফকির, বোন মালেকা বেগম, ভাই সুরত আলী ফকির, ভাগ্নি মিতু আক্তার, বোনজামাতা ছালাম খানকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ছালাম খানের নাম মামলার চার্জশীট থেকে বাদ দিয়ে দেয়। অন্যান্য ৫ আসামির বিরুদ্ধে গত ২৯ মার্চ আদালত আগৈলঝাড়া থানায় ওয়ারেন্ট জারি করে।

এরই মধ্যে গত ৯ মার্চ আসামি ও তাদের ভাড়াটিয়া লোকজনে শিল্পী বেগমের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে মামলা উত্তোলনের জন্য তাকে (শিল্পীকে) বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতিসহ পেট্রোল দিয়ে পুড়িয়ে মারার হুমকি প্রদর্শন করে। উপায়অন্তুর না পেয়ে অসহায় শিল্পী বেগম এ ঘটনায় আগৈলঝাড়া থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেন (যার নং-৮৬১)। থানায় জিডি করায় আসামিরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে শিল্পী বেগমকে হুমকি প্রদর্শন অব্যাহত রেখেছে। তাদের অব্যাহত হুমকির মুখে অসহায় শিল্পী এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন। অপরদিকে থানায় ওয়ারেন্ট থাকা সত্বেও পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারে রহস্যজনক ভূমিকা পালন করছেন বলেও শিল্পী অভিযোগ করেন। অসহায় শিল্পী বেগম সঠিক বিচার পেতে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button