আর্কাইভ

সংখ্যালঘু পরিবারকে নির্যাতন করে সাজানো মামলা দিয়ে হয়রানির অপচেষ্টা

হিন্দু পরিবারকে নির্যাতন করে উল্টো সাজানো মামলা দিয়ে হয়রানির করার অপচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রবিপুর গ্রামের মৃত-মহেন্দ্র নাথ হালদারের পুত্র পল্লী চিকিৎসক শম্ভুনাথের সাথে মেউর গ্রামের মুনসুর খানদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। ইতিপূর্বে মুনসুর খানরা শম্ভুনাথের জমির জোরপূর্বক বেদখল করার চেষ্টা চালায়। বাধা দিলে তাকে খুন জখমের হুমকি দেয়া হয়। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শম্ভুনাথ ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী ছিল। ঐ একই ওয়ার্ডে মুনসুর খানের দলীয় মেম্বার প্রার্থী ছিল আলাউদ্দিন খান। নির্বাচনে তারা উভয়েই পরাজিত হয়। ইতিপূর্বে শম্ভূনাথের জমির দখল নিতে তারা ব্যার্থ হয় এবং সর্বশেষ ইউপি নির্বাচনে পরাজিত হয়ে মুনসুর খানরা প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে উঠে। তাহার জের ধরে গত ১০ এপ্রিল সকাল বেলা মুনসুর খানরা শম্ভুকে তার বাড়ী থেকে ডেকে এনে মারধর করে এবং মামলা করলে প্রাননাশের হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় তিনি বাকেরগঞ্জ থানায় গত ১১ এপ্রিল একটি সাধারন ডাইরী করেন। ডাইরী নং-৪০৯। শম্ভু নাথ জিডি করায় সুচতুর মামলাবাজ মুনসুর গত ১৩ এপ্রিল উল্টো তার বিরুদ্ধে মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং-১২। অসহায় শম্ভুনাথ মুনসুরদের অত্যাচার ও মিথ্যা সাজানো মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে বরিশাল পুলিশ সুপার ও বাকেরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি ও সহযোগীতা কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button
Translate »