আর্কাইভ

চেয়ারম্যান-মেম্বারদের শপথ অনুষ্ঠান নিয়ে তেলেছমাতি কান্ড

বলেখ্যাত গৌরনদী উপজেলার ৭ টি, আগৈলঝাড়া উপজেলার ৫ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত সদস্যাদের শপথ অনুষ্ঠান না হওয়ায় এসব এলাকার ভোটারদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বরিশাল জেলার অন্যান্য ইউনিয়নের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শপথ অনুষ্ঠান হয়ে গেলেও কি কারনে গৌরনদী ও আগৈলঝাড়ার ১২ টি ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিদের শপথ বাক্য পাঠ করানো হচ্ছেনা এ নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনেও চলছে নানা কানাঘুষা। স্বাধীনতার পরবর্তী সময় থেকে এ বছরই কেবল স্বচ্ছ ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বারদের কবে নাগাদ শপথ বাক্য পাঠ করানো হবে তাহাও নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। এ কারনে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের মাঝেও চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে গৌরনদী উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ এমাদাদুল হক স্বপনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, শপথ বাক্য পাঠ করানোর বিষয়টি স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের। এ ব্যাপারে আমাদের কিছুই করার নেই। আমাদের কাছে এখনো গেজেটের কোন কপি এসে পৌঁছায়নি। তিনি আরো বলেন, গত ২৯ মার্চ গৌরনদী উপজেলার ৬টি ও ৩ এপ্রিল ১টি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে জরুরি ভিত্তিতে আমরা নির্বাচনের রেজাল্ট সিট কমিশনে প্রেরন করেছি। সে মতে গত ১৮ এপ্রিল কমিশন থেকে রেজাল্ট সিট বিজি প্রেসে পাঠানো হয়েছে মর্মেও আমাদের কাছে চিঠি এসেছে। কি কারনে এখনো গেজেটের কপি আসতে বিলম্ব হচ্ছে সে ব্যাপারে আমি কিছুই বলতে পারবো না।

আগৈলঝাড়া উপজেলার ৫টি ইউনিয়নেও গত ২৯ মার্চ শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্বস্ত একটি সূত্রে জানা গেছে, বিজি প্রেস থেকে গেজেটের কপি পূর্ণরায় নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হয়। সেখানে তদবিরের মাধ্যমেই জরুরি ভিত্তিতে গেজেটের কপি সংশ্লিষ্ট উপজেলার পাঠানো হয়। সূত্রে আরো জানা গেছে, গৌরনদীতে অফিসিয়াল ভাবে গেজেটের কপি এসে না পৌঁছলেও গত তিনদিন পূর্বে কতিপয় জনপ্রতিনিধির হাতে গেজেটের কপি এসে পৌঁছেছে। এসব ইউনিয়নের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ও ভোটাররা জরুরি ভিত্তিতে শপথ বাক্য পাঠ করানোর জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »