আর্কাইভ

ভূমি দস্যূদেরহাত থেকে রক্ষা পেল শতকোটি টাকার সম্পদ

টাকার সম্পত্তি আদালতের রায়ে ভূমিদস্যু ও প্রতারকদের কালো থাবা থেকে রক্ষা পেল । এ জন্য পৌরবাসী  আদালতের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে জালিয়াতি চক্রের বিচার দাবি করেছে। দীর্ঘদিন এ নিয়ে মামলা চলার পর গত ৯ মে ঝালকাঠি যুগ্ন জেলা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মু. হাবিবুর রহমান সিদ্দিকি এ রায় দেন। রায়ের আদেশে বাদির মামলা দোতরফা সূত্রে খারিজ করে বিবাদি পক্ষের মামলা পরিচালনার সকল খরচ বাদি পক্ষকে পরিশোধের নির্দেশ দেয়া হয়।

বিবাদি পক্ষের আইনজীবী মাহাবুব আলম কবির জানান, শহরের শতকোটি টাকার এ সম্পত্তি একটি ভূমিদস্যু চক্র দীর্ঘদিন আত্মসাৎ করার পায়তারা করে আসছে। তাই এ সম্পত্তি রক্ষায় পৌরসভা, বিদ্যুত অফিস, ডায়াবেটিক সমিতিসহ ১৭ জন বিবাদি হয়ে মামলায় পক্ষ হয়। মামলা নং ১৭/২০০৫। মামলায় পৌর কাউন্সিলর লতিফা হেলেনসহ মোট ১৮ জন বাদি ছিলো। তারা ২০০৮ সনে এ মামলায় একবার হেরে যান। এরপর বাদি পক্ষ হাইকোর্টে আপিল করলে উচ্চ আদালত পূনঃ বিচারের নির্দেশ দেয়ায় উক্ত আদালতের বিচারে এ রায় দেয়া হয়।

বিবাদি পক্ষের আইনজীবী জানান, বাদিপক্ষ কোন দিন এ জমির দখলে ছিল না। এছাড়া তারা এ জমি আত্মসাতের জন্য ভূয়া ওয়ারিশ দেখিয়েছে। মামলা ভূক্ত কিছু জমি পৌরসভা ইজারা দেয়। কিন্তু জালিয়াতি চক্র এ জমি আত্মসাতের জন্য নলছিটি, রাজাপুর এলাকার লোকজনদের মামলায় পক্ষ করে। সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে স্বাক্ষ্য প্রমান স্বাপেক্ষে আদালতে দ্বিতীয় বার বিবাদিদের এ মামলাও খারিজ করা হয়। এতে জালিয়াতি চক্রের হাত থেকে শত কোটি টাকার সম্পত্তি রক্ষা পেয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »