আর্কাইভ

গজিয়ে উঠছে সাউথবিউ ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল – নেই ইংরেজী শিক্ষক

ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল। সেখানে শিক্ষার্থীদের ভর্তিও শুরু করেছে। কিন্তু স্কুলটি ইংলিশ মিডিয়াম শুধু নামেই কাজে নয়। শিক্ষকদের তালিকায় অভিজ্ঞতা সম্পন্ন বা যোগ্য কোন শিক্ষক নেই। এমনকি যোগ্য কোন ইংরেজী শিক্ষকও নেই এখানে। ইতোমধ্যে স্কুলটির যাত্রা সম্পর্কে এক সংবাদ সন্মেলনও করেছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। প্রশ্ন হচ্ছে ইংরেজী শিক্ষায় শিক্ষিত করার বিপরীতে অভিভাবকদের প্রলুব্ধ করে এটা কি ব্যাবসায়িক স্বার্থে গড়ে উঠেছে।

নগরীর পলিটেকনিক কলেজ রোড এলাকায় ৫ তলা ভবন নিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে সাউথবিউ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল। স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা হলেন আমিনুল ইসলাম নামের এক ব্যাক্তি। তিনি রাজধানী ঢাকায় থাকেন। পরিচালক মন্ডলীর মধ্যে  রয়েছেন বরিশাল সাউথ এ্যাপোলো ডায়াগনষ্টিক কমপ্লেক্সের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার শহিদুল ইসলাম। তিনি বিসিসি মেয়র শওকত হোসেন হিরনের ব্যাবসায়ীক পার্টনার। এছাড়া পরিচালক মন্ডলীতে রয়েছেন নগরীর নূরিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোঃ জাকির হোসেন,পাদুকা ব্যাবসীয় সামসুল আলম মুকুল, এ এ মোহাম্মাদ হোসাইন খোকন,ডাঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন,মের্সাস্ খন্দকার এন্টারপ্রাইজের মোঃ সাইফুল্লাহ মাসুম,হাসান এন্ড এ্যাসোসিয়েটস লিমিটিডের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আব্দুল ওয়াদুদ মিয়া,আলেকান্দা গার্লস স্কুলের শিক্ষিক মিসেস মাহাবুবা আক্তার,লিজিং লিমিটিডের পরিচালক মিসেস ফাতেমা জহির।

সংবাদ সন্মেলনে এ লেবেল পর্যন্ত শিক্ষাদানের কথা বলা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে এ লেভেল পড়ানোর কোন শিক্ষক এখানে নেই। যাদেরকে পাঠদানের জন্য শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়েছে তাদের ইংলিশ মিডিয়ামে শিক্ষকতার আদৌও কোন অভিজ্ঞতা নেই। নিয়োগকৃতরা কোন কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিজ্ঞ কোন শিক্ষকতা পেশার সঙ্গে সম্পূক্ত ছিল না।  শিক্ষাদানের কোন ধরনের অভিজ্ঞতা নেই এরকম ব্যাক্তিদের শিক্ষক পদে নিয়োগ দেয়া হয়। নিয়োগকৃত ১৪ জন শিক্ষকের মধ্যে তিন জনকে দেখানো হয়েছে যে এরা ইংরেজীতে অনার্স মাষ্টার্স করা। বাকীরা ইংরেজী ব্যাতীত অন্যান্য বিষয়ে অনার্স মাষ্টার্স করা। নিয়োগকৃত তিন জন ইংরেজী শিক্ষকের  যথাযথ পাঠদানের  বিষয় নিয়ে অনেকেই সন্দিহান। কারন এরা শিক্ষা জীবনে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে পড়াশুনাও করেন নি। নিয়োগকৃতরা সদ্য অনার্স মাস্টার্স সম্পন্ন করেছে। এরা দেশের ভালো মানের কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকেও শিক্ষা লাভ করেন নি। এদিকে এই স্কুলটি কার্যক্রম পরিচালনা করতে ৫ কোটি টাকার বাজেট নির্ধারন করা হয়েছে। এক্ষেত্রে এত টাকা কে বা কারা ডোনেট করবে পরিস্কারভাবে বলতে পারেন নি স্কুল কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে।

 প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগীয় উপ-পরিচালক এসএম ফারুক হোসেন বলেন সাইথ বিউ ইন্টারন্যাশনাল নামের স্কুল প্রতিষ্ঠার বিষয়টি তিনি জানেন না। এরকম কোন প্রতিষ্ঠানের অনুমতি নেয় নি। বরিশাল সাউথ এ্যাপোলো ডায়াগনষ্টিক কমপ্লেক্সের পরিচালক ও সাউথবিউ ইন্টারন্যাশনাল ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের পরিচালক মন্ডলীর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার শহিদুল ইসলাম বলেন আপাতত আমরা স্কুলটি কার্যক্রম শুরু করছি। আস্তে আস্তে সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। পরবর্তীতে ইংরেজী বিষয়ে দক্ষ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। টাকার উৎস প্রসঙ্গে বলেন পরিচালনা বোর্ডে ক্রমান্বয়ে সদস্য সংখ্যা বাড়ানো হবে। বোর্ডের সদস্যরাই টাকার জোগান দিবেন বলে তিনি মন্তব্য করেন।

আরও পড়ুন

Back to top button