আর্কাইভ

সাতলায় সংখ্যালঘুদের জমি দখল করে মৎস্য ঘের নির্মানের অপচেষ্টা

সম্প্রদায়ের প্রায় ১২শো বিঘা ধানের জমিতে অবৈধ ভাবে মৎস্য ঘের নির্মানের ঘৃণ্য অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল খালেক আজাদ, তার আত্মীয় সাহাবুল পাইক, ছত্তার পাইক, রহিম পাইক, হাবিব মিয়া সহ বেশ কিছু চিহ্নিত ভূমিদস্যু চক্র। তাদের অব্যাহত হুমকির মুখে অসহায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ডাক্তার মনোরঞ্জন বাইন, শান্তী রঞ্জন বালা, আদীত্য বাইন, শ্যমল বৈধ্য, কৃষ্ণ কান্ত বল্লভ সহ অর্ধশত পরিবারকে নির্যাতন করা হচ্ছে বলে একাধিক অভিযোগ পাওয়াগেছে। প্রভাবশালী মৎস্য ঘের নির্মানকারীদের ভয়ে তারা মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা। ২০০১ সালে উল্লেখিত ভূমিদস্যুরা একই স্থানে মৎস্য ঘের নির্মানের চেষ্টা করলে তৎকালিন বি এন পি দলীয় সাংসদ ও যুবদল সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের  

হস্তক্ষেপে তারা ঘের নির্মানে ব্যার্থ হয়। পরবর্তিতে তারা পটিবাড়ী গ্রামে অসহায় মানুষের ধানের জমি দখল করে উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল খালেক আজাদের ছত্র ছায়ায় পুনরায় ঐ ঘের নির্মানের চেষ্টা করছে। এ বিষয়ে অসহায় নির্যাতিত মানুষ গুলো উজিরপুর বানরীপাড়া সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মনিরুল ইসলাম মনি, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বাদল, ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রিয় সিন্ধু তালুকদারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। অন্য দিকে উপজেলার আ’লীগের সভাপতি আব্দুল খালেক আজাদের সাথে কথা বললে তিনি বলেন এলাকায় তার আত্মীয় স্বজনরা একটি মাছের ঘের নির্মান করছেন বলে তিনি শুনেছেন। তবে তিনি নিজে এর সাথে স¤পৃক্ত নেই।

আরও পড়ুন

Back to top button