আর্কাইভ

প্রেমিকের বাড়িতে বিয়ের দাবীতে অনশন করায় প্রেমিকা আটক!

করার পর শনিবার দুপুরে প্রেমিকাকে আটক করেছে পুলিশ। বিয়ের জন্য প্রেমিকের বাড়িতে এসে শ্রিঘরে যাওয়ার ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকার তেজগাঁও থানার রাখাল পাড়া এলাকার আসাদুজ্জামানের মেয়ে আশা (২০) উক্ত এলাকার জেশন ফার্মাসিউটিকেলস লিঃ কোম্পানীতে চাকরীরত অবস্থায় সহকর্মী রুবেল বেপারীর(২৫) সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। গভীর প্রেম চলতে থাকে প্রায় সাড়ে তিন বছর। হঠাৎ করে ১০/১২ দিন আগে রুবেল তার নিজ গ্রাম মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার রমজানপুর ইউনিয়নের উত্তর রমজানপুর এলাকায় বাড়িতে চলে আসে। মুঠোফোনে যোগাযোগের পর আশা শুক্রবার সকালে বাড়িতে হাজির হলে পরিবারের পক্ষ থেকে বিয়ে মেনে নিতে না চাইলে রুবেল পালিয়ে ঢাকায় চলে যায়। বিয়ের দাবীতে অনড় থাকলে রুবেলের পরিবারের লোকজন আশাকে শারীরিক নির্যাতন করে।  সে আত্মাহত্যার হুমকীসহ কোন রকমে রুবেলের বাড়িতেই রাত কাটায়। শনিবার সকালে বাড়ির লোকজন তাকে তাঁরাতে নানা কৌশল ও হুমকী-ধুমকী দেয়। বিষয়টি চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে। অবস্থা বেগতিক দেখে দুপুরে থানায় খবর দিয়ে পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেয় রুবেলের পরিবারের লোকজন।

আশা এ প্রতিবেদককে জানান, ‘আমাকে বিয়ে করবে বিধায় এই বাড়িতে আইছি। ওর সাথে বিয়ে না হলে আমি আত্মহত্যা করমু। পুলিশকে ব্যবহার করে ওরা (রুবেলের পরিবারের লোকজন) রুবেলের কাছ থেকে দুরে সরানোর চেষ্টা করছে।’

থানার সহকারী পরিদর্শক (এসআই) ফায়েকুজ্জামান জানান, ‘আইনী সহায়তার আশ্বাস দিয়ে আশাকে রুবেলের বাড়ি থেকে থানায় নিয়ে আসা হয়। তার নিরাপত্তার জন্য আদালতের জিম্মায় রাখা হয়েছে।’

প্রেমিক রুবেল বেপারীর বিরুদ্ধে কোন ব্যাবস্থা নেয়া হবে কি-না জানতে চাইলে কালকিনি থানার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম শাহীন মন্ডল বলেন, আশার অভিভাবকদের খবর দেয়া হয়েছে। অভিভাবকরা আদালত থেকে তাকে তাদের জিম্মায় নিয়ে যাবে। ঘটনা ঢাকায় ঘটায় সেখানেই মামলা দিতে হবে। এখানে আমাদের কিছু করার নেই।

আরও পড়ুন

Back to top button