আর্কাইভ

জাতীয় বাজেটে বরিশালের সমস্যা ও সম্ভাবনাকে গুরুত্ব দিতে হবে

সমস্যা ও সম্ভাবনাকে গুরুত্ব দিতে হবে । সরকারের বাজেটে বরা বরই বরাদ্দ বঞ্চিত তিন বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে বরিশালের অবস্থা শোচনীয় পর্যায়ে রয়েছে। বঞ্চিত তিন বিভাগের মধ্যে খুলনায় দারিদ্র্যের হার ৪৫ দশমিক ৭ ভাগ, রাজশাহীতে ৫১ ভাগ, আর বঙ্গোপসাগরের কুল ঘেঁষা সর্বদক্ষিণের বরিশাল বিভাগের দারিদ্র্যের হার ৫২ ভাগ। আগামী ববজেটে এ অঞ্চলের জন্য প্রয়োজন মত উন্নয়ন বরাদ্ধ রাখতে হবে নচেত আন্দোলনের কর্মসূচী দেবে বরিশাল বিভাগ উন্নয়ন ও স্বার্থ সংরক্ষন কমিটি । জাতীয় বাজেটে গণতন্ত্রায়ন শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা এসব কথা বলেন ।

 জাতীয় বাজেটকে সামনে রেখে গতকাল রবিবার বরিশাল প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বরিশাল বিভাগ উন্নয়ণ ও স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির উদ্যোগে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলনের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত গোলটেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বরিশাল বিভাগ উন্নয়ণ কমিটির আহবায়ক বরিশাল পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গোলাম মাওলা।

আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর মোঃ হানিফ, সাবেক যুগ্ম সচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন, শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ডাঃ আজিজ রহিম। মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বেসরকারী সংস্থা আভাসের নির্বাহী পরিচালক নারীনেত্রী রহিমা সুলতানা কাজল। বরিশাল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক লিটন বাশারের উপস্থাপনায় বক্তৃতা করেন বরিশাল বিভাগ উন্নয়ন ও স্বার্থসংরক্ষণ কমিটির সদস্য সচিব ডাঃ মিজানুর রহমান, গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলনের সদস্য ও সিএসআর পরিচালক মনোয়ার মোস্তফা এবং রাশেদ রিপন প্রমুখ।

দ্বিতীয় পর্বে সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন শিক্ষক নেতা অধ্যাপক মহসিন উল ইসলাম হাবুল। আলোচনায় অংশ নেন মানবাধিকার জোটের সভাপতি ডাঃ সৈয়দ হাবিবুর রহমান, দৈনিক বিপ্লবী বাংলাদেশের সম্পাদক নূরুল আলম ফরিদ, মুক্তিযোদ্ধা এনায়েত চৌধুরী, এনজিও ব্যক্তিত্ব আনোয়ার জাহিদ ও নারী নেত্রী মৌসুমী জাহান সহ নগরীর গণ্যমান্য ব্যক্তিরা। অর্থ মন্ত্রণালয়ের উদ্বৃতি দিয়ে বৈঠকে টানা ২২ বছরে বরিশাল বিভাগে বঞ্চনার কথা তুলে ধরে বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করা হয়। সরকারী হিসেব অনুযায়ী সারাদেশে দারিদ্র্যের হার ৪০ ভাগ। এরমধ্যে প্রমত্তা পদ্মা নদী দ্বারা বিভাজন হওয়া রাজধানী ঢাকা সহ সিলেট ও চট্টগ্রামের দারিদ্র্যের হার সবচেয়ে কম। আর বেশি দরিদ্র মানুষের বসতি হিসেবে যুগ যুগ ধরে চিহ্নিত হয়ে আসছে বরিশাল, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগ। সরকারী দেয়া তথ্যে ঢাকায় দারিদ্র্যের হার ৩২ ভাগ, চট্টগ্রামে ৩৪ ভাগ, সিলেটে ৩৩ দশমিক ৮ ভাগ। ধনী এই তিন বিভাগেই এডিবি সহ বড় বড় প্রকল্প থেকে বিগত আমলে বিপুল টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। বরাদ্দ বঞ্চিত তিন বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে বরিশালের অবস্থা শোচনীয় পর্যায়ে রয়েছে। বঞ্চিত তিন বিভাগের মধ্যে খুলনায় দারিদ্র্যের হার ৪৫ দশমিক ৭ ভাগ, রাজশাহীতে ৫১ ভাগ, আর বঙ্গোপসাগরের কুল ঘেঁষা সর্বদক্ষিণের বরিশাল বিভাগের দারিদ্র্যের হার ৫২ ভাগ।

উন্নয়ন বরাদ্দের বৈষম্যের কারণেই যখন ধনীদের বসতি তিন বিভাগে দারিদ্র্যের কমতে ছিল তখন অর্থনীতির চাকা উল্টোগতিতে ঘুরতে গিয়ে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের তিন বিভাগের দারিদ্র্যের হার বাড়তে থাকে। গতকাল রবিবার গোলটেবিল বৈঠকে আঞ্চলিক বরাদ্দ বৈষম্য দূর করে জাতীয় বাজেটে দক্ষিণাঞ্চলের সমস্যা ও সম্ভাবনাকে গুরুত্ব দেয়ার প্রস্তাব দেয়া হয়।

আরও পড়ুন

Back to top button