আর্কাইভ

দু’উপজেলাবাসীর মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ॥ এলাকায় উত্তেজনা

বৃহস্পতিবার প্রায় ঘন্টাকালব্যাপী ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এ নিয়ে ওই এলাকায় এখন চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে গৌরনদী উপজেলার প্রত্যন্ত সরিকল গ্রামের খোকন মৃধার সাথে পাশ্ববর্তী বাবুগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের শাহিন হাওলাদারের মটরসাইকেল ভাড়া নিয়ে বাকবিতন্ডা বাঁধে। একপর্যায়ে খোকন মৃধা হামলা চালিয়ে শাহিনকে মারধর করে। মুহুর্তের মধ্যে এখবর শাহিনের নিজ এলাকা আগরপুর ইউনিয়নে ছড়িয়ে পরলে ইউনিয়নবাসীর মধ্যে চরম উত্তেজনা দেখা দেয়। শাহিনের সমর্থনে এলাকার শত শত লোকজন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সরিকল ইউনিয়নের খোকনের সমর্থকদের ধাওয়া করে। এসময় উভয় উপজেলার লোকজনদের সাথে প্রায় ঘন্টাকালব্যাপী ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় এলাকার কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। খবর পেয়ে সরিকল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ও আগরপুর পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত এ নিয়ে ওই এলাকায় এখনো চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে গৌরনদী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ নুরুল ইসলাম-পিপিএম বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ দায়ের করেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় উভয় উপজেলার চেয়ারম্যানদের সমন্বয়ে আগামি সোমবার সালিশ বৈঠকের দিন ধার্য করা হয়েছে।

নির্ভরযোগ্য একটি সূত্রে জানা গেছে, সরিকল বন্দর সংলগ্নস্থানে গত ২৬ দিন পূর্বে সার্কাসের নামে লটারীর খেলা পরিচালনা করা হয়। সেখানে প্রতিদিন লটারীর নামে লক্ষ লক্ষ টাকার খেলা চলছে। ওই সার্কাস ও লটারীর খেলাকে কেন্দ্র করেই গৌরনদীর সরিকল ও বাবুগঞ্জের আগরপুর ইউনিয়নবাসীর মধ্যে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঘন্টাকালব্যাপী ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

আরও পড়ুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button
Translate »