আর্কাইভ

এমপি’র এপিএস’র গাছ কেটে নেয়ার সত্যতা পাওয়া গেছে

ক্ষমতাবলে গাছ কেটে নেয়ার সত্যতা পেয়েছে তদন্ত কর্মকর্তা। উপজেলা বন কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ খান দীর্ঘ তদন্ত শেষে মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।

প্রতিবেদনে ক্ষমতাবলে প্রতিবেশী আব্দুল জলিল মুন্সির মালিকানা জমি এবং এলজিইডি’র সড়কের পাশ থেকে ৩৫টি মেহেগিনি ও রেইনট্রি গাছ কেটে নেয়ার কথা উল্লেখ রয়েছে। এছাড়া গাছ কেটে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি এবং সরকারকে রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত করার বিষয়টি উল্লেখ করে তদন্তকারী কর্মকর্তা হামিদ খান গাছ কেটে নেয়া ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করেন।

গতকালই এ প্রতিবেদন অগ্রগামী করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠানো হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম আজাদ।

উল্লেখ্য, গত ২২ ও ২৩ জানুয়ারী বানারীপাড়ার ইলুহার ইউনিয়নে বাইশারী-বিশারকান্দী সড়কের দু’পাশে থাকা সরকারী ও ব্যক্তি মালিকানাধীন বিভিন্ন প্রকারের গাছ কেটে নেয় পিরোজপুর-২ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় এমপি অধ্যক্ষ শাহ আলমের এপিএস ইলুহার এলাকার বাসিন্দা সালাম মুন্সি।

এ বিষয়ে তদন্তপূর্বক বিচারের দাবিতে মার্চের ১ম সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী, বনমন্ত্রী, এলজিইডি, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেন স্থানীয় আব্দুর জলিল মুন্সি। এর প্রেক্ষিতে বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার তদন্তের জন্য উপজেলা বন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »