আর্কাইভ

অপ্রাপ্ত বয়সী কিশোরদের মোবাইল ফোন আটকের হিড়িক

নির্দেশে বরিশালের গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ মঙ্গলবার সকালে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেছেন। অভিযানের প্রথম দিনেই দু’থানায় অপ্রাপ্ত বয়সী এক কিশোরীসহ ১৯জন কিশোরকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে আটককৃতদের তাদের স্ব-স্ব অভিভাবকরা থানায় লিখিত মুচলেকা দিয়ে ছাড়িয়ে নিয়েছে। এ নিয়ে দু’থানার সর্বত্র বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দরা।

গৌরনদী থানার এস.আই অসীম কুমার সিকদার জানান, ১৮ বছরের কম বয়সী (অপ্রাপ্ত বয়সী) কিশোররা দীর্ঘদিন থেকে কারনে অকারনে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মেয়েদের নানা ধরনের উত্যক্তসহ যৌণ হয়রানী ও সামাজিক অপরাধের মতো ঘটনা ঘটিয়ে আসছে। এ ধরনের অপরাধ ঠেকাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় অপ্রাপ্ত বয়সী কিশোরদের মোবাইল ফোন ব্যবহার ও সিম বিক্রয় কেন্দ্রের ওপর কঠোর নজরদারি বৃদ্ধির নির্দেশ দিয়েছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার সকালে গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ড, টরকী বন্দর, বাটাজোর বাজারসহ গুরুতপূর্ণস্থানে থানা পুলিশ অভিযান চালায়।

অভিযানের প্রথম দিনেই গৌরনদী থেকে অপ্রাপ্ত বয়সী স্কুল পড়ুয়া ১০ কিশোরকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো-রাকিব খান (১৪), রাসেল তালুকদার (১২), বেল্লাল হোসেন (১৫), মিঠু (১৪), একরামুল হোসেন (১৪), ফরহাদ হোসেন (১৩), আরিফ মোল্লা (১৬), সোহাগ (১২), সুজন দাস (১৭) ও আফজাল হোসেন (১৭)। আটককৃতদের ওইদিন বিকেলে তাদের অভিভাবকরা থানায় এসে লিখিত মুচলেকা দিয়ে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। তিনি আরো জানান, পরবর্তীতে ভ্রামম্যান আদালতের মাধ্যমে অপ্রাপ্ত বয়সী মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের সাজা প্রদান করা হবে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। একইভাবে আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ বিভিন্ন স্কুলের সম্মুখে অভিযান চালিয়ে তন্নী রায় (১৪) নামের এক কিশোরীসহ ৯জন কিশোরকে আটক করেছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »