আর্কাইভ

গৌরনদীতে দু’গ্রুপের মধ্যে হামলা পাল্টা হামলায় ১০ জন আহত

পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে দু’গ্র“পের সমর্থকদের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলা ও সংঘর্ষে উভয় গ্র“পের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে।

জানা গেছে, বার্থী গ্রামের মন্টু শীলের কাছ থেকে কয়েক মাস পূর্বে তার চাচাতো ভাই রামকৃষ্ণ শীল ৫ হাজার টাকা ধার নেয়। ওই টাকা দিতে রামকৃষ্ণ নানা টালবাহানা করে। পাওনা টাকা চাওয়ার জন্য মন্টু শীল কয়েকজন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীকে নিয়ে বুধবার রাত সাতটার দিকে রামকৃষ্ণ শীলের বার্থী গ্রামের বাড়িতে গিয়ে পাওনা টাকা চায়। এ খবর পেয়ে বার্থী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহজাহান প্যাদার ভাই জাফর প্যাদা ওই বাড়িতে যায়। এ সময় ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের সাথে তার (জাফরের) বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা জাফরের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করে। এ খবর ছড়িয়ে পরলে জাফর প্যাদার সহযোগীরা বার্থী বাজারে বসে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের ওপর পাল্টাহামলা চালায়। এ সময় উভয় গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। হামলা ও সংঘর্ষে জাফর প্যাদা, কালাম কবিরাজ, আবুল কালাম, মন্টু শীল, রামকৃষ্ণ শীল, সুমন, জাকারিয়া, রুবেলসহ উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। সংঘর্ষ চলাকালীন সময় গোটা বার্থী বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে। খবর পেয়ে গৌরনদী থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে সন্ত্রাসীরা তাদের ব্যবহৃত তিনটি মটরসাইকেল ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

আরও পড়ুন

Back to top button