আর্কাইভ

আওয়ামীলীগ নেতাতে হাতুরি পেটায় মহাসড়ক অবরোধ

সাধারন সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর আজ মঙ্গলবার বিকেলে হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ কর্মীরা। এ ঘটনার প্রতিবাদে এলাকাবাসি ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের বার্থী বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় অবরোধ করেছে। অবরোধ চলাকালে বিক্ষুব্ধরা একটি যাত্রীবাহি বাস ভাংচুর করেছে। অবরোধের কারনে রাস্তার দু’পার্শ্বে অসংখ্য যানবাহন আটকা পরে। এতে ঈদে ঘরমুখী যাত্রী ও রোজাদার ব্যক্তিদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। খবর পেয়ে গৌরনদী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্ঠাকালে পুলিশ ও বিক্ষুব্ধ জনতার সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে প্রায় দেড়ঘন্টা পর আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

আহত বার্থী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও বার্থী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহজাহান প্যাদা জানান, গতকাল মঙ্গলবার বিকেল চারটার দিকে গৌরনদী থেকে মটরসাইকেলযোগে নিজ এলাকায় ফেরার পথিমধ্যে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের উত্তর পালরদী মৎস্য অফিসের সম্মুখে পৌঁছেন। পথিমধ্যে স্থানীয় ছাত্রলীগ কর্মী রুবেল হোসেন ও বাবুর নেতৃত্বে ৬/৭ জনে তাকে আরোহী মটরসাইকেল গতিরোধ করে। মটরসাইকেল চালক তার সহদর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা জাফর প্যাদার (২৫) ওপর ছাত্রলীগ কর্মীরা হামলা চালিয়ে হাতুরি পেটা করে। এসময় সহদরকে রক্ষার জন্য শাহজাহান প্যাদা এগিয়ে গেলে তার ওপরও হামলা চালানো হয়। গুরুতর অবস্থায় জাফরকে গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান প্যাদাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এ খবর মুহুর্তের মধ্যে বার্থী এলাকায় ছড়িয়ে পরলে হাজার-হাজার গ্রামবাসি বিক্ষোভে ফেঁটে পরেন। একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধরা ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের বার্থী বাসষ্ঠ্যান্ডে অবরোধ সৃষ্টি করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এসময় বিক্ষুব্ধরা একটি যাত্রীবাহি লোকালবাস ভাংচুর করে। খবর পেয়ে গৌরনদী থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিক্ষুব্ধদের শান্ত করার চেষ্ঠাকালে জনতা ও পুলিশের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ ব্যাপক লাঠিচার্জ করে। প্রায় দেড় ঘন্টাপর বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ আলম খান, পৌর মেয়র হারিছুর রহমান হারিছসহ আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে পৌঁছে হামলাকারীদের বিচারের আশ্বাস দিলে বিক্ষুব্ধরা অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়।
 
গৌরনদী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ নুরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন

Back to top button