আর্কাইভ

শাবির দু’ ছাত্রকে পুলিশের মারধর – মহাসড়ক অবরোধ

রিয়াজ উদ্দিন, শাবিঃ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুজন ছাত্রকে পুলিশ কর্তৃক মারধরের ঘটনায় গতকাল সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়ক কয়েক ঘণ্টা অবরোধ করে রাখে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক শতাধিক শিক্ষার্থী টায়ার জ্বালিয়ে দায়ী পুলিশের শাস্তি দাবিসহ পুলিশের বিরুদ্ধে নানা স্লোগান দিতে থাকে। এ সময় রাস্তার উভয় দিকে কয়েক শতাধিক গাড়ি অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, নগরীর মদিনা মার্কেটে গত রোবরবার রাত ৩ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পেট্রোলিয়াম মাইনিং এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ৪র্থ বর্ষ ২য় সেমিস্টারের সাব্বির ও মারুফ নামের দুজন শিক্ষার্থী হাটতে বেরোয়। এ সময় কর্তব্যরত দুজন পুলিশ কনস্টেবল অযথা তাদের উপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে তাদেরকে শারীরিকভাবে আঘাত করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্র দেখানো পরও তারা প্রহার করে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দায়ী পুলিশের শাস্তির দাবিতে সোমবার সকাল ১১টার দিকে ওই বিভাগের শিক্ষার্থীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা আগুন জ্বালিয়ে রাস্তা অবরোধ করে। তৎক্ষনাৎ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এস এম সাইফুল ইসলামসহ কয়েক সহকারী প্রক্টর ঘটনাস্থলে ছাত্রদের নিয়ন্ত্রণের আনার চেষ্টা চালান। কিন্তু শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত অবরোধ তুলবেন না জানায়।

দুপুর ১টার দিকে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার এম এ জলিলের নেতৃত্বে পুলিশের একটি প্রতিনিধি প্রশাসন ও শিক্ষার্থীদের আলোচনা করে দোষী পুলিশদ্বয়কে প্রত্যাহার করে নেয়া হবে জানালে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে ক্যাম্পাসে ফিরে আসে। এই ঘটনার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে দায়ী করে জাতীয় ছাত্রদল শাবি শাখার সভাপতি রিয়াজ মোহাম্মদ খান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্বল প্রশাসনের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদের বারবার পুলিশের হাতে মার খেতে হচ্ছে, পরিবহন শ্রমিকদের ও পার্শ্ববর্তী এলাকার মানুষের হাতে নির্যাতিত হচ্ছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »