আর্কাইভ

থানার এএসআই’কে কারন দর্শানোর নোটিশ

উম্মে রুম্মান, বরিশাল ॥ ম্যাজিষ্ট্রেটের অনুপস্থিতিতে আটককৃত ইলিশ মাছ বিতরন করায় কোতোয়ালী মডেল থানার এএসআই মহিউদ্দিনকে কারন দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম আবুল বাশার মিয়া এ আদেশ দেন।

১২ অক্টোবর কীর্তনখোলা নদীর চরমোনাইনাই বুখাইনগর বাজারের সংলগ্ন পাড় থেকে দেড় মণ জাল ও ১০ কেজি মাছসহ দু’জেলে নগরীর পলাশপুর বস্তির শাহিন ও সদর উপজেলা শায়েস্তাবাদ পানিবাড়িয়া গ্রামের সোহেলকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় এএসআই মহিউদ্দিন প্রজনন মৌসুমে অবৈধভাবে ইলিশ মাছ নিধনের অভিযোগে দুই জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। একই সাথে উদ্ধারকৃত মাছ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে এতিমখানায় বিতরন করেন।
গতকাল দু’জেলের জামিন শুনানীর দিনে জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম আবুল বাশার মিয়া জানান, চোরাই মাল বলিয়া কথিত বা সন্দেহযুক্ত বা কোন অপরাধ সংগঠনের সন্দেহ সৃষ্টিকারী অবস্থায় প্রাপ্ত সম্পত্তি কোন পুলিশ অফিসার জব্দ করিলে তাহা কোন ম্যাজিষ্ট্রেটকে অবহিত করিতে হইবে। ম্যাজিষ্ট্রেট ঐ সম্পত্তির বিহীত করিবেন। কিন্তু মহিউদ্দিন এই বিধান অগ্রাহ্য করে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে মাছ বিতরন করেছেন।

যা এএসআই মহিউদ্দিন আইনের রক্ষকের ভুমিকা না নিয়ে ভক্ষকের ভুমিকায় অবতীর্ন হয়ে বেআইনী কাজ করেছেন। যাদের নির্দেশে তিনি এমন বেআইনী কাজ করেছেন তাদের নাম উলেখ করে কারন দর্শনোর জবাব দেয়ার আদেশ দিয়েছেন হাকিম। একই সাথে দুই আসামীর জামিনের জন্য পরবর্তী দিন ২৩ অক্টোবর ধার্য করেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »