আর্কাইভ

চোরাই ষাড় জবাই করে চেয়ারম্যানের জন্মদিন পালন!

ঝালকাঠী প্রতিনিধি ॥ ঝালকাঠি গাভারামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা আমিনুল ইসলাম লিটন ওরফে লিটু খা, তার ২ ভাই সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে এবার একটি ষাঁড় গরু চুরী করে জবাই দিয়ে মাংস লুটে নেয়ার ঘটনায় বানারিপাড়া থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। ইউনিয়ান সংলগ্ন এলাকা থেকে চুরী করে আনা ষাড় গরুটি জবাইয়ের ঘটনা নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে গাভা ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে আসামীরা এ ষাড় জবাই করেছে বলে মামলার অভিযোগে প্রকাশ।ছেলের জন্মদিনে চুরি গরুর মাংশ দিয়ে অথিতি আপ্যায়নের প্রস্তুতি নিচ্ছেলেন বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়। গতকাল সোমবার মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বানারীপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইসুফ আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্ত করেছেন। বানারিপাড়া ইউনিয়নের সালিয়া বাকপুর এলাকার কবির আহম্মেদ বাদি হয়ে চুরি করে খাবার অপরাধের ধারায় গত ১৫ অক্টোবর এ মামলা দাযের করেন।( মামলা নং ৪)।

মামলার বাদি কবির আহম্মেদ এজাহারে উল্লেখ করেন, বানরিপাড়ার পূর্ব সালিয়াবাকপুর জামে মসজীদের নামে ৬০ হাজার টাকা মূল্যের এ ষাড়াটি ছাড়া হয়। গত ৪ অক্টোবর রাতে ৩/৪ জন ধাওয়া করে ষাড় গরুটি মসজীদের সামনে থেকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে গিয়ে ষাড়টি ফিরিয়ে আনতে চাইলে আসামীরা তাদের বাধা য়ে এবং এ ষাড় গরুটি দেয়া হবেনা বলে জানায়। তখনই বিষয়টি সংশ্লিষ্ট সালিয়াবাকপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ঝালকাঠি থানার ডিউটি অফিসার এসআই জাফরকে অবহিত করে। এ অবস্থায় গত ১৩ অক্টোবর রাত ৩ টায় আসামীরা ষাড় গরুটি জবাই করে ভাগবাটোয়ারা করে নেয়।  

এব্যাপারে গাভারামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের মেম্বর হাবিবুর রহমান জানান, এ ষাড়টি জবাই করার জন্য চেয়ারম্যান আমাদের রেজুলেশনে স্বাক্ষর দিতে বললেও আমারা অনেকেই স্বাক্ষর দিতে অপারগতা প্রকাশ করি । কারন এটি অন্য এলাকার হওয়ায় ওই ষাড়ের মাংসে আমাদের হক নেই।

এ বিষয়ে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক অশোক কুমার বিশ্বাস জানান, আমার কাছে একটি ষাড় জবাইয়ের ব্যাপারে গাভা ইউপি চেয়ারম্যান অনুমতি চাইলেও আমি এখন পর্যন্ত তা দেইনি। এ ব্যাপারে গাভারামচন্দ্রপুর ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লিটন জানান, ষাড়টি আমি ৫ দিন ধরে বেঁধে রেখেছি। জেলা প্রশাসকের কাছে জবাইয়ের অনুমতি চেয়ে না পাওয়ায় মাসিক সভায় রেজুলেশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এটি জবাই করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »