আর্কাইভ

বোরহানউদ্দিনে একটি ব্রীজের জন্য জনদুভোর্গ চরমে

বরিশাল প্রতিনিধি ॥ ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার সীমান্তবর্তী একটি ব্রীজের জন্য দুইটি উপজেলার কয়েক হাজার পরিবার যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে পড়েছে। ফলে জনদুভোর্গ চরম আকার ধারন করেছে।

জানাযায়- উপজেলার সীমান্তবর্তী কাচিয়া ইউনিয়নের দালাল বাজার পূর্ব দিকে গেলে একতা বাজার সংলগ্ন বোরহানউদ্দিন উপজেলা ও তজুমুদ্দিন উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থার জন্য ১২০ ফুট লম্বা প্রায় ৫ বছর পূর্বে এই ব্রীজটি নির্মাণ করা হয়। কিন্তু ১ বছর পূর্বে বালি ভর্তি কার্গোর ধাক্কায় ব্রীজটি মাঝ খান থেকে প্রায় ৪০ ফুট ভেঙ্গে যায়। এতে ওই ব্রীজটির উপর দিয়ে চলাচল কারী যানবাহন, সাধারন জনগন, ব্যবসায়ী ও স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা চলাচল করতে পারছেনা। এদিকে আরও জানাযায় ওই ব্রীজটি দুইটি উপজেলার ঠিক মাঝ খানে হওয়ায় দুই উপজেলার প্রশাসনের রেশারেশীতে ভেঙ্গে যাওয়া ব্রীজটি অদ্য বধি সংস্কার করার কোন উদ্দ্যেগ না নেওয়ায় কয়েক হাজার পরিবারের যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে রয়েছে। এই ব্রীজ দিয়ে যাতায়াত কারী ব্যবসায়ী মুছা মিয়া (৫০), হানিফ (৫০), রুবেল (১৯) আজকের বরিশাল কে জানান- স্যার আমরা তজুমুদ্দিনে এই ব্রীজ দিয়ে ব্যবসা করার জন্য যাতায়াত করতাম। কিন্তুু ব্রীজটি ভেঙ্গে যাওয়ায় আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় ৩ টাকা ভাড়া দিয়ে এই খালটি পারাপার হই। কিন্তুু ব্যবসা বাণিজ্য করতে পারছিনা। তজুমুদ্দিন উপজেলার এক ব্যবসায়ী হাবিবুল্লা মুন্সি (৪৫) জানান- আমি বোরহানউদ্দিন উপজেলার একতা বাজারে একটি চায়ের দোকান করি। আমি ব্রীজটি দিয়েই আমার সাইকেল যোগে চলাচল করতাম। আজকে ১ বছর হলো ব্রীজটি ভেঙ্গে যায়। কিন্তুু কেউ আমাদের কথা চিন্তা করে এই ব্রীজটি সংস্কারের কাজ করছেনা।

অন্যদিকে দুইটি উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থার কথা চিন্তা করে দ্রুত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে এই ব্রীজটি সংস্কারের জোরালো দাবী করেন ওই দুই উপজেলার ব্যবসায়ী, কয়েক হাজার সাধারন পরিবার।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »