আর্কাইভ

স্বামীকে ফাঁসাতে যৌতুকের অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ ইউপি চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে স্বামীকে ডির্ভোস দিয়েছে গৃহবধূ নামজা আক্তার রুবি। এবার স্বামীকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসাতে বিভিন্নস্থানে যৌতুকের মিথ্যে নাটক সাজিয়েছে ওই গৃহবধূ। এনিয়ে এলাকায় বেশ তোলপাড় শুরু হয়েছে। ঘটনাটি বরিশালের গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া গ্রামের। ওই গ্রামের আলাউদ্দিনের পুত্র সৌদী প্রবাসী মান্নান সরদার অভিযোগ করেন, গত ২০০৮ সনের ১১ মে সামাজিকভাবে তার সাথে একই বাড়ির চাচাতো বোন আদু সরদারের কন্যা নাজমা আক্তার রুবির বিয়ে হয়। বিয়ের পর মান্নান বিদেশে চলে যান। বিদেশে গিয়ে স্ত্রী রুবির নামের ব্যাংক এ্যাকাউন্টে সে পর্যায়ক্রমে ২ লক্ষ ৮২ হাজার টাকা পাঠায়। এরইমধ্যে মান্নান বিদেশ থেকে দেশে ফিরে পাঠানো টাকার হিসাব চাইলে পুরো টাকা আত্মসাতের জন্য স্ত্রী রুবি তার সাথে নানাতালবাহান শুরু করে। এ নিয়ে তাদের দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়। যারপ্রেক্ষিতে গত ১ জানুয়ারি মাহিলাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে এক শালিস বৈঠকের আয়োজন করা হয়। ওই বৈঠকে রুবি তার স্বামী মান্নান সরদারকে ডির্ভোস দেয়। এ সময় শালিসদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক মান্নান পূর্ণরায় রুবিকে ৫০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। পরবর্তীতে রুবি তার স্বামীকে ফাঁসাতে থানায় যৌতুকের মিথ্যে অভিযোগ দায়ের করেন। থানার ওইকপি নিয়ে সে (রুবি) সাংবাদিকদের কাছে মিথ্যে ও বিভ্রান্তিকর তথ্য পরিবেশন করে। মান্নান সরদার ওই মিথ্যে ও বিভ্রান্তিকর সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের দাবি করেছেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »