আর্কাইভ

ফকরুলকে নিয়ে কটুক্তি করায় গৌরনদীতে ছাত্রদল ও ছাত্রলীগের মধ্যে হামলা পাল্টা হামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মীর্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীরকে নিয়ে কটুক্তি করায় ছাত্রদল নেতা ও তার সহযোগীরা পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে এক ছাত্রলীগ কর্মীকে। মুহুর্তের মধ্যে এ খবর সর্বত্র ছড়িয়ে পরলে ছাত্রলীগ কর্মীরা জড়ো হয়ে হামলাকারীদের খুঁজতে বিভিন্ন এলাকায় মটরসাইকেল মহড়া দিয়েছে। মহড়ার সময় হামলাকারীদের না পেয়ে ওই এলাকার দু’যুবককে পিটিয়ে আহত করা হয়। গুরুতর আহত তিনজনকেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে বরিশালের গৌরনদী বন্দর এলাকায়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন আত্মগোপনের পর সোমবার মীর্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীরের আত্মপ্রকাশ নিয়ে ওইদিন সন্ধ্যায় গৌরনদী বন্দরের একটি চায়ের দোকানদারের সাথে পৌর ছাত্রলীগ নেতা দক্ষিণ পালরদী মহল্লার জামাল বেপারী কথা বলছিলেন। এসময় দোকানের পাশ দিয়ে যাওয়া পৌর বিএনপির সভাপতি এস.এম মনির-উজ জামান মনিরের ছোট ভাই পৌর ছাত্রদল নেতা বড় কসবা মহল্লার ফয়েজ সরদার ফকরুলকে নিয়ে কটুক্তির প্রতিবাদ করেন। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে ছাত্রদল নেতা ফয়েজ ও তার সহযোগীরা এলোপাথারি ভাবে পিটিয়ে ছাত্রলীগ নেতা জামাল বেপারীকে গুরুতর আহত করে। এ ঘটনার জেরধরে ছাত্রলীগ কর্মীরা হামলাকারীদের ওপর প্রতিশোধ নেয়ার জন্য মটরসাইকেল মহড়া বের করে। একপর্যায়ে হামলাকারীদের না পেয়ে ছাত্রলীগ কর্মীরা ওইদিন রাতে বন্দর এলাকায় বসে বড় কসবা মহল্লার মনির খান ও তারিকুল ইসলাম শাহিন নামের দু’যুবককে পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে গৌরনদী পৌরসভার মেয়র মোঃ হারিছুর রহমান হারিছ ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »