আর্কাইভ

বরিশালে কোস্টগার্ডের গুলিতে নিহত জেলের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশাল সদর উপজেলার চরবাড়িয়া ইউনিয়নের লামছড়ির কীর্তনখোলা নদীতে কোস্টগার্ডের সাথে জেলেদের সংঘর্ষের পর নিখোঁজ জেলে জুয়েলের (২২) লাশ বৃহস্পতিবার দুপুরে উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত জুয়েলের লাশের ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। জুয়েল উপজেলার চরবাড়িয়া ইউনিয়নের দক্ষিন লামচরী গ্রামের মোস্তফা ফরাজীর পুত্র।

নগরীর কাউনিয়া থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর একটার দিকে কীর্তনখোলা নদীর লামছড়ি এলাকার নদীতে স্থানীয়রা একটি লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় নিখোঁজ জেলে জুয়েলের লাশ উদ্ধার করে। লাশের শরীরে গুলি কিংবা অন্য কোন আঘাতের চি‎‎হ্ন রয়েছে কিনা তা ময়না তদন্তে চি‎ি‎হ্নত হবে। স্থানীয় জেলে রফিকুল ইসলাম জানান, কোস্টগার্ডের গুলিতে জুয়েল ফরাজী নিহত হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন অংশে গুলির চি‎হ্ন রয়েছে। লাশ উদ্ধারের পর পরই নিহত জেলে পরিবার ও তার স্বজনদের মাঝে চলছে আহজারী।

উল্লেখ্য, বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে কোষ্টগার্ড সদস্যরা কীর্তনখোলা নদীতে অবৈধ জাল আটক করতে গেলে জেলেদের সাথে কোস্টগার্ড সদস্যদের সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে সঞ্জয় কুমার নামের এক কোষ্টগার্ড সদস্য গুরুতর আহত হয়।

জেলেদের অভিযোগ, কোস্টগার্ড সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকে। সংঘর্ষে হান্নান ও কবির আকন নামে দু’জেলে কোস্টগার্ডের হামলায় গুরুতর আহত এবং জুয়েল নিখোঁজ হয়। একইদিন বিকেলে উল্টো কোস্টগার্ডের কর্মকর্তা তোফিক উদ্দিন বাদি হয়ে আটক দু’জেলে হান্নান ও কবির আকনকে আসামি করে স্থানীয় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »