আর্কাইভ

মিথ্যে মামলার আসামি হয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে গৃহপরিচারিকা বিউটি

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার কান্ডপাশা গ্রামের অসহায় গৃহপরিচারিকা বিউটি বেগমের অর্ধলক্ষ টাকা মূল্যের গাছ জোড়পূর্বক কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষ প্রভাবশালী জামাল সরদার ও তার সহযোগীরা। প্রভাবশালীদের বাঁধা দেয়ায় বিউটির বসত ঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুরসহ মারধর করে আহত করা হয় গৃহের লোকজনদের। তার পরেও ক্ষ্যান্ত হয়নি হামলাকারীরা। তারা মিথ্যে ছিনতাই মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করছে বিউটি বেগম ও তার পরিবারের সদস্যদেরকে। প্রতিপক্ষের মামলা ও হামলার ভয়ে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছেন গৃহপরিচারিকা বিউটি বেগম।

প্রভাবশালীদের দায়ের করা মিথ্যে মামলা থেকে রেহাই পেতে অসহায় গৃহবধূ বিউটি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। বিউটি বেগম জানায়, অভাবের তাড়নায় তার পঙ্গু স্বামী আয়নাল সরদার ও সন্তানদের নিয়ে তিনি দীর্ঘদিন থেকে ঢাকায় বসবাস করে আসছেন। তিনি বাসা-বাড়িতে গৃহপরিচারিকার কাজ করে কোন একমতে সংসার চালিয়ে আসছেন। বিউটি বেগম অভিযোগ করেন, তাদের অনুপস্থিতে তার জা মর্জিনা বেগম তাদের সম্পত্তির বিভিন্ন প্রজাতের ২৩টি গাছ যার আনুমানিক মূল্য প্রায় লক্ষাধিক টাকা বিক্রি করেন স্থানীয় গাছ ব্যবসায়ী জামাল সরদারের কাছে। জামাল গত ২ জুন ওই গাছ তড়িঘড়ি করে কেটে নেয়। খবর পেয়ে বিউটি বেগম ঢাকা থেকে বাড়িতে এসে সরিকল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অভিযোগ দায়ের করেন। তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এস.আই শাহ জালাল খলিফা ওইদিনই কর্তনকৃত গাছ জব্দ করেন। এতে জামাল ও তার সহযোগীরা ক্ষিপ্ত হয়ে গত ৩ জুন সকালে বিউটির বসত ঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে। হামলায় বিউটি ও তার ননদ ঝর্ণা বেগম গুরুতর আহত হয়। এ ব্যাপারে সালিশ বৈঠকের আয়োজন করা হয়। গ্রাম্য সালিশ ব্যবস্থাকে অমান্য করে জামাল উল্টো বিউটি ও তার পুত্রসহ ১০জনকে আসামি করে গত ৪ জুন গৌরনদী থানায় একটি মিথ্যে ছিনতাই মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশের গ্রেফতার আতংকে ও প্রতিপক্ষের হামলার ভয়ে বিউটি ও তার পরিবারের লোকজন বাড়ি-ঘর ছেড়ে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »