আর্কাইভ

উজিরপুরে সৎমায়ের বিষপ্রয়োগে ৮বছরের শিশুকে হত্যার অভিযোগ

আঃ রহিম সরদার, উজিরপুর ॥ উজিরপুরে জল্লা ইউণিয়নের জল্লা গ্রামে সৎমা খাবারে সাথে বিষ মিশিয়ে ৮বছরের শিশু পুত্রকে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

থানা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় গত ১৫ জুন শুক্রবার রাত ১১টায় সৎমা জুলেখা বেগম খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে ৮ বছরের শিশু পুত্র জিহাদকে খেতে দেন। খাওয়া কিছুক্ষনের ভিতরেই শিশুটি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। তাৎক্ষনিক এলাকার পল্লী চিকিৎসক ডাঃ নারায়ন চন্দ্রের কাছে নিলে চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষনা করে। এখবর  মুর্হুতের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। খবর পেয়ে  উজিরপুর অফিসার ইনচার্জ সদ্বযোগদানকৃত আনোয়ার হোসেন লাশটিকে পোর্সমর্টেমের জন্যে বরিশাল শেবাচিমে প্রেরন করেন।

এব্যাপারে নিহত শিশুটির খালু মিজানুর রহমান জানান গত ১১ বছর পূর্বে খুলনা সোনাডাঙ্গার  আবু জাফর মোল্লার মেয়ে রুমা আক্তারের সাথে জল্লা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে হাবিবুর রহমানের সাথে আনুষ্ঠানিক ভাবে বৈবাহিক সূত্রে আবদ্ধ হন। তাদের এ ১১ বছর দাম্পত্য জীবনে দুটি ফুটফুটে পুত্র সন্তান জন্ম নেয়। জিহাদ(৮) ও ইয়ামিন (৪)। কিন্তু বছর দেড়েক পূর্বে পড়কিয়ায় জড়িয়ে পড়েন হাবিবুর রহমান। মনদেয়া নেয়ার এক পর্যায়ে পড়কিয়া প্রেমিকের প্ররোচনায় রুমা আক্তারকে তালাক দিয়ে মুন্সীর তালুক গ্রামের হাকিমের মেয়ে পড়কিয়া প্রেমিক জুলেখাকে বিয়ে করে ঘরে তোলেন। বড় ছেলেকে নিজের কাছে রেখে ছোট ছেলে ইয়ামিনকে নানী বাড়ি মায়ের কাছে পাঠিয়ে দেন। কিন্তু সৎমা তার জীবনের সকল জ্বালা ঘুচাতে সতিনের ছেলে জিহাদকে খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে হত্যা করেছেন। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »