আর্কাইভ

কোদালধোয়ায় এনজিও কর্মীর শ্লীলতাহানী – থানায় মামলা দায়ের

আগৈলঝাড়া সংবাদদাতা ॥ আগৈলঝাড়ায় এক এনজিও কর্মীর শ্লীলতাহানী করেছে তিন বখাটে। শালিসের নামে ইউপি সদস্যসহ বখাটেদের পক্ষের লোকজনের কালক্ষেপন। এঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এনজিও কর্মী সূত্রে জানাগেছে, গত সোমবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে কর্মস্থল থেকে ওই এনজিও কর্মী কিশোরী (১৪) বাড়ি ফেরার পথে কোদালধোয়া গ্রামে এলে নির্জনপথে একা পেয়ে ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল ড্রাইভার কোদালধোয়া গ্রামের আনন্দ পান্ডের ছেলে সুশান্ত পান্ডে ওরফে গেদু, একই গ্রামের জয়দেব পান্ডের ছেলে নিপু ও সুশিল পান্ডের ছেলে কালু পান্ডে তাকে ধরে মুখে গামছা বেঁধে পার্শ্ববর্তী পুকুর পাড়ের জঙ্গলে নেয়ার চেষ্টা কালে ওই কিশোরী অজ্ঞান হয়ে যায়। এসময় বখাটেদের ধস্তা-ধস্তি দেখে জনৈক পথচারী মহিলার ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে বখাটেরা পালিয়ে যায়।

অজ্ঞান ওই কিশোরীকে সাবেক চেয়ারম্যান রনজিৎ পান্ডের বাড়ি নিয়ে সুস্থ করা হয়। ওই রাতে বাকাল ইউপি সদস্য গণেশ পান্ডে ও সংরক্ষিত সদস্যা বনিতা সরকারের নেতৃত্বে ওঝা বাড়ির উঠানে প্রহসনের এক শালিস বৈঠক ডাকা হয়। ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, সুরেশ বৈষ্ণব, সমির পান্ডে, বিকে পান্ডে, গণেশ পান্ডে, মনিন্দ্র সরকারসহ স্থানীয় প্রভাবশালীরা। শালীস বৈঠকে ঘটনার কোন সুরাহা না হওয়ায় মঙ্গলবার সকালে পুনরায় মিমাংসার আশ^াস দিয়ে গ্রাম্য মাতুব্বরেরা কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় মঙ্গলবার দুপুরে ওই কিশোরী বাদী হয়ে আগৈলঝাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। যার নং- ০৪ (০৩/০৭/২০১২)।

নারী নির্যাতন

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »