আর্কাইভ

যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে ডির্ভোস ঘোষনা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ দুই লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বড়দুলালী গ্রামের এক গৃহবধূকে অমানুষিক নির্যাতনের পর বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় অসহায় গৃহবধূ তানিয়া বেগম স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে ধর্ণা দিয়ে ব্যর্থ হয়ে অবশেষে এনজিও ব্র্যাকের আইন সহায়তা কেন্দ্রে মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলা থেকে রেহাই পেতে পূর্বে এনজিও থেকে লোন উত্তোলনের জন্য গৃহবধূ তানিয়ার কাছ থেকে সাদা কাগজে নেয়া স্বাক্ষরের মাধ্যমে ডির্ভোস লিখে আইন সহায়তা কেন্দ্রে জমা দিয়েছেন যৌতুকলোভী পাষন্ড স্বামী ফোরকান ফকির। এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।

উপজেলার বাউরগাতি গ্রামের দিনমজুর আনোয়ার মোল্লার কন্যা তানিয়া বেগম (২০) জানায়, বড়দুলালী গ্রামের মতি ফকিরের পুত্র ফোরকান ফকিরের সাথে গত এক বছর পূর্বে সামাজিক ভাবে তার বিয়ে হয়। ওই সময় বর পক্ষের যৌতুক হিসেবে দাবিকৃত নগদ ৪০ হাজার টাকা, স্বর্ণালংকার ও অন্যান্য মালামাল পরিশোধ করা হয়। বিয়ের কয়েক মাস যেতে না যেতেই পূর্ণরায় অটোরিকসা ক্রয়ের জন্য যৌতুকলোভী ফোরকান গৃহবধূ তানিয়ার পিতার কাছে পূর্ণরায় ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে। এতে তানিয়া বাঁধা দেয়ায় প্রায়ই তাকে শারিরিক নির্যাতন করা হতো। সর্বশেষ গত ১৯ জুন তানিয়াকে অমানুষিক নির্যাতনের পর বাড়ি থেকে বের করে দেয়া হয়। অসহায় গৃহবধূ তানিয়া স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »