আর্কাইভ

পুলিশের চাঁদাবাজি বন্ধের প্রতিবাদে বরিশালে ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের ধর্মঘট

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ ট্রাফিক পুলিশের চাঁদাবাজি বন্ধ ও ট্রাক টার্মিনাল নির্মানের দাবিতে বরিশাল বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দরা বুধবার দুপুরে বিক্ষোভ মিছিল করে ট্রাক চলাচল বন্ধসহ ধর্মঘট শুরু করেছে।

সংগঠনের ১ নং শাখার সভাপতি মোঃ কালাম মোল্ল¬া জানান, নগরীর চারটি প্রবেশদ্বারে সিটি কর্পোরেশন তাদের কাছ থেকে টোল রাখা সত্বেও তাদের ট্রাক রাখার জন্য সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে কোন স্ট্যান্ডের ব্যবস্থা করা হয়নি। অপরদিকে ট্রাফিক পুলিশও তাদের কাছ থেকে জোরপূর্বক চাঁদা আদায় করে আসছে। তিনি আরো জানান, গতকাল বুধবার বেলা এগারোটার দিকে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের পার্শ্বে রাখা তাদের একটি ট্রাক পুলিশ আটক করে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবি করে। এ খবর মুহুর্তের মধ্যে সর্বত্র ছড়িয়ে পরলে সংগঠনের সদস্যদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বেলা সাড়ে বারোটার দিকে ট্রাক শ্রমিকেরা গড়িয়ারপার নামকস্থানের তাদের সংগঠনের কার্যালয়ের সম্মুখে উপস্থিত হয়ে বিক্ষোভে ফেঁটে পরেন। একপর্যায়ে সংগঠনের সদস্যরা ও ট্রাক শ্রমিকেরা একত্রিত হয়ে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। কালাম মোল্ল¬া আরো জানান, ট্রাক স্ট্যান্ড ও পুলিশের চাঁদাবাজি বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত তাদের এ ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে। হঠাত করে ধর্মঘটের ডাক দেয়ায় গড়িয়ারপার এলাকায় পণ্যবাহী অসংখ্য ট্রাক আটকা পরেছে। চাঁদাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করে নামপ্রকাশ না করার শর্তে ট্রাফিক পুলিশের একটি সূত্রে জানা গেছে, দশ টনের অধিক মালামাল নিয়ে ট্রাকটি নগরীতে প্রবেশ করতে গেলে আটক করতে গেলে ট্রাক শ্রমিকেরা তাদের ওপর চড়াও হয়।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »