আর্কাইভ

আগৈলঝাড়ার রত্মপুরে যৌতুকের বলি হলো গৃহবধূ টুম্পা বালা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ সম্প্রতি জাল টাকার নোটসহ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে কারাভোগ করে অতিসম্প্রতি জামিনে বেড়িয়ে আসে যতীন বিশ্বাস। ওই মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে শশুড় বাড়ি থেকে দুই লক্ষ টাকা যৌতুক আনার জন্য স্ত্রীকে নানাধরনের চাপপ্রয়োগ করে আসছিলো যতীন। স্বামীর দাবিকৃত যৌতুকের টাকা আনতে অপরাগতা প্রকাশ করায় অমানুষিআগৈলঝাড়ার রত্মপুরে যৌতুকের বলি হলো গৃহবধূ টুম্পা বালাক নির্যাতনের পর গৃহবধূ টুম্পা বালাকে (১৯) শ্বাশরুদ্ধ করে হত্যা করে ঝুঁলিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ শনিবার রাতে নিহত গৃহবধূ টুম্পার লাশ উদ্ধার করে রবিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরন করেছেন। ঘাতক স্বামী ও তার পরিবারের লোকজনে এলাকা ছেড়ে আত্মগোপন করেছে। এ ঘটনায় প্রাথমিক ভাবে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে আগৈলঝাড়া উপজেলার রত্মপুর ইউনিয়নের নাঘার গ্রামে।

 

নিহত গৃহবধূ টুম্পা বালার পিতা গৌরনদী উপজেলার চাঁদশী ইউনিয়নের ধুরিয়াইল গ্রামের কানাই লাল বালা অভিযোগ করেন, তার কন্যা টুম্পা বালা ধানডোবা মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ২০১০ সনের এসএসসি পরিক্ষার্থী ছিলো। ওইসময় প্রেমের সম্পর্কে পরিবারের সবার অজান্তে টুম্পাকে বিয়ে করে আগৈলঝাড়া উপজেলার রতœপুর ইউনিয়নের নাঘার গ্রামের দেবেন্দ্র নাথ বিশ্বাসের পুত্র যতীন বিশ্বাস (২৫)। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ লেগেই ছিলো। তিনি আরো অভিযোগ করেন, সম্প্রতি যতীন বিশ্বাস বিপুল পরিমান জাল টাকার নোটসহ উজিরপুর উপজেলার সাতলা বাজারে বসে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়। ওই মামলায় কয়েক মাস কারাভোগের পর যতীন অতিসম্প্রতি জামিনে বেরিয়ে আসে।

নিহত টুম্পার মা বিউটি বালা অভিযোগ করেন, ওই মামলা থেকে অব্যাহতি পেতে যতীন ও তার পরিবারের লোকজনে তার কন্যা টুম্পার কাছে দুই লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে। এতে অপরাগতা প্রকাশ করায় প্রায়ই টুম্পাকে শারিরিক নির্যাতন করা হতো। সবশেষ শনিবার সন্ধ্যায় টুম্পার যৌতুকলোভী স্বামী যতীন ও তার পরিবারের লোকজনে একই দাবিতে টুম্পার ওপর শারিরিক নির্যাতন শুরু করে। একপর্যায়ে টুম্পা জ্ঞান হারিয়ে ফেললে যতীন ও তার পরিবারের লোকজনে টুম্পার গলায় রশি বেঁধে ঘরের চালার সাথে ঝুলিয়ে হত্যা করে। পরবর্তীতে বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য যতীন ও তার পরিবারের লোকজনে টুম্পা আত্মহত্যা করেছে বলে এলাকায় রটিয়ে দিয়ে আত্মগোপন করে। এ ঘটনায় টুম্পার পিতা কানাই লাল বালা হত্যা মামলা দায়ের করবেন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

খবর পেয়ে ওইদিন রাতে আগৈলঝাড়া থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এস.আই) মোঃ আক্কাস আলী ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে গতকাল রবিবার সকালে লাশের ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল মর্গে প্রেরন করেছেন। আগৈলঝাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ সাজ্জাত হোসেন বলেন, এ ব্যাপারে এখনো কেউ থানায় মামলা দায়ের করেননি। মামলা দায়ের করা হলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে প্রাথমিক ভাবে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে (যার নং-১৯/১২, ২১-৭-২০১২ইং) বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »