আর্কাইভ

বরিশালে বাসের ধাক্কায় চার কলেজ শিক্ষার্থী আহতের জের দু’বাসে অগ্নিসংযোগ – দু’টি বাস ভাংচুর – চালককে গনধোলাই – ছয় রুটের বাস চলাচল বন্ধ

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশাল সদর উপজেলার চরকাউয়া ও বাকেরগঞ্জ উপজেলার গোমা রুটে মঙ্গলবার সকালে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় কলেজগামী শিক্ষার্থীদের বহনকারী নসিমনের সংঘর্ষে চার শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসি ও শিক্ষার্থীরা ওইদিন দুপুরে দু’টি বাসে অগ্নিসংযোগ ও অপর দু’টি বাসে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেছে। এসময় গণধোলাই দেয়া হয়েছে বাস চালককে আব্দুল মালেককে। এ ঘটনার পর থেকে চরকাউয়া থেকে চলাচলকরা ছয়টি রুটের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

আহত শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতাহারউদ্দিন হাওলাদার ডিগ্রী কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্রী শাহনাজ আক্তারকে (১৮) আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরন করা হয়েছে। অপর আহত শিক্ষার্থী একই কলেজ দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্রী পিপাসা (১৭), সীমা (১৭) ও প্রথম বর্ষের ছাত্র রায়হানকে (১৬) এবং গনধোলাইয়ের শিকার বাস চালক আব্দুল মান্নানকে (৩৭) বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী, আহত ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গোমা বাসস্ট্যান্ড থেকে জহিরুল এন্টারপ্রাইজ নামে একটি যাত্রীবাহি বাস গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে চরকাউয়া ফেরিঘাটের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে যাত্রীবাহি বাসটি বোর্ড স্কুল সংলগ্ন গাইনবাড়ির সম্মুখে বসে একটি নসিমনকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তার পার্শ্বের খাদে ফেলে দেয়। এ সময় নসিমনে থাকা কলেজগামী চার শিক্ষার্থী ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয়। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে এলাকাবাসি ও কলেজের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ওইদিন বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে সড়কে গাছের গুড়ি ফেলে অবরোধ সৃষ্টি করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধরা গোমা বাসষ্ট্যান্ডে থাকা আল-আকসা পরিবহনে আগুন ধরিয়ে দেয়।

অপরদিকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যাওয়া জহিরুল এন্টারপ্রাইজ নামে বাসটি বেলা বারোটার দিকে বাকেরগঞ্জের চরামদ্দি এলাকায় বিক্ষুব্ধরা আটক করে বাস চালক মান্নানকে গণধোলাই দিয়ে বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। বিক্ষুব্ধরা এ সময় সজিব পরিবহনসহ দুটি যাত্রীবাহি বাসে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।

বাকেরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি নুরুল ইসলাম-পিপিএম জানান, আহত শিক্ষার্থীদের স্থানীয়রা ও গণধোলাইর স্বীকার চালককে পুলিশ উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এরমধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় আহত কলেজ ছাত্রী শাহনাজকে দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকায় প্রেরন করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, বরিশাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশ ও স্থানীয়দের সহযোগীতায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন। বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত হলেও চরকাউয়া থেকে লাহারহাট ফেরিঘাট, গোমা, চন্দ্রমোহন, কাটাদিয়া, হলতা ও নেহালগঞ্জ রুটের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

বরিশালে বাসের ধাক্কায় চার কলেজ শিক্ষার্থী আহতের জের দু’বাসে অগ্নিসংযোগ - দু’টি বাস ভাংচুর - চালককে গনধোলাই - ছয় রুটের বাস চলাচল বন্ধ

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »