আর্কাইভ

বেপেরায়া গাড়ী চালনার অভিযোগে নিহত মটর সাইকেল চালকের বিরুদ্ধে মামলা – সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও তার ভাইয়ের রাজাপুরে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন

ঝালকাঠি সংবাদদাতা ॥ ঝালকাঠিতে শনিবার সকালে বরিশাল-ঝালকাঠি-খুলনা আঞ্চলিক মহাসড়কের গাবখান সেতুর (পঞ্চম বাংলাদেশ চিনমৈত্রী সেতু) ফুটওভারে মোটর সাইকেলের ধাক্কায় নিহত জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার সৈয়দ শামসুল আলম ও তার ভাই বড়ইয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান সৈয়দ শাহ আলমের রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় জানাজা শেষে রোববার দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে রবিবার দুপুরে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। অন্যদিকে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয়ক পরিচয়ে হেমায়েত হোসেন হিমু বাদী হয়ে শনিবার দুপুরে ঝালকাঠি থানায় বেপরোয়া গতিতে গাড়ী চালানোর অভিযোগে নিহত মটর সাইকেল চালক ইলিয়াস হাওলাদারকে (২৮) আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছে।
 
শনিবার বিকাল সাড়ে ৫ টায় প্রথম জানাযা নামাজ ঝালকাঠি কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় বরিশালের মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ, বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি আব্দুর রহিম, জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারন সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনির, জেলা প্রশাসক অশোক কুমার বিশ্বাস, পুলিশ সুপার মো. মজিদ আলী, ঝালকাঠি জেলার ৪টি উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সহ সর্বস্তরের কয়েক হাজার মানুষ জানাজায় অংশগ্রহন করেন। জানাজা শেষে জেলা পুলিশ বিভাগের একটি চৌকস দল জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা প্রদান করেন।

এরপর বরিশালের মুক্তিযোদ্ধা নেতৃবৃন্দ, বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি, জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আওয়ামীলীগ, ঝালকাঠি পৌরসভা সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির পক্ষ থেকে তার কফিনে পুস্পস্তবক অর্পন ও শেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করার পর সন্ধ্যার পূর্বে তাকে জন্মস্থান রাজাপুরে নিয়ে যাওয়া হয়।

রবিবার সকাল ১০টায় রাজাপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দ্বিতীয় জানাজা নামাজ শেষে দুপুরে তাদের পারিবারিক গোরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন হয়। প্রসঙ্গত, শনিবার সকাল বরিশাল-খুলনা মহাসড়কের ঝালকাঠির গাবখান ব্রীজে মটরসাইকেল দূর্ঘটনা ঘটলে ঘটনাস্থলেই মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের  মৃত্যু হয়। এ সময় অপর আরোহী জেলা কমান্ডারের বড় ভাই রাজাপুরের বড়ইয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সৈয়দ শাহ আলম ও মটর সাইকেলে চালক ইলিয়াস হাওলাদার গুরুত্বর আহত হয়। আশঙ্কাজনক আবস্থায় তাদের বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নেয়া হলে বেলা সাড়ে ১১টায় ইলিয়াস ও বিকাল আড়াইটায় সৈয়দ শাহআলম চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এদিকে দুজন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ত্বের অকাল মৃত্যুতে জেলা জুড়ে শোকের ছায়া নেমে আসে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »