আর্কাইভ

বরিশাল সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালকের বিরুদ্ধে একই দপ্তরের তিন নারী কর্মচারীর যৌণ হয়রানীর অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশাল সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালকের বিরুদ্ধে ওই দপ্তরের তিন নারী কর্মচারীর যৌণ হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার বিচার চেয়ে ওই তিন নারী কর্মচারী সমাজকল্যান মন্ত্রণালয়ে লিখিত আবেদন করেছেন।

আবেদন সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মাহাবুবুল ইসলাম সম্প্রতি সময়ে তার দপ্তরের সার্ভিসেস ফর চিলেড্রেন এট রিস্ক (স্কার) প্রকল্পে কর্মরত তিন নারী কর্মচারী আউটরিচ ওয়ার্কার মোর্শেদা আক্তার মুক্তা, পারভীন আক্তার ও কেয়ার গিভার নাসরিন আক্তারকে বিভিন্ন সময় বিনাপ্রয়োজনে অফিসে ডেকে অশ্লীল ও কু-রুচিপূর্ন কথা বলে। এমনকি তার স্ত্রী নগরীর বাইরে কর্মরত থাকায় মাঝে মধ্যে তার বাসায় যেতে পৃথক ভাবে ওই তিন নারীকে প্রস্তাব দিতো। দীর্ঘদিন যাবত তার এধরনের কর্মকান্ড চলে আসলেও চাকুরীর সুবাদে কর্মকর্তার বিষয়ে তারা কেউ মুখ খুলতে সাহস পাননি। সম্প্রতি সময়ে উপ-পরিচালক তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও অফিসের ফোন দিয়ে একাধিকবার ওই নারীদের পৃথক ভাবে ফোন দিয়ে অফিসে ডেকে নিয়ে তার বাসায় স্ত্রীর অবর্তমানে সময় দেয়ার জন্যও প্রস্তাব দেয়। পরে বিষয়টি সমাজসেবা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও প্রকল্প পরিচালককে অবহিত করেও কোন প্রতিকার না পেয়ে সমাজ সেবা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বরাবরে আবেদন করেছেন ওই তিন নারী কর্মচারী।

এ ব্যাপারে বরিশাল সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মাহাবুবুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, একটি মহল আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে আসছে। এটি তারই একটি অংশ।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »