আর্কাইভ

আগৈলঝাড়ার চাঁত্রিশিরা গ্রামে অচেতন করে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ ॥ গ্রেফতার-১

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ রাতের খাবারের সাথে চেতনানাশক দ্রব্য খাইয়ে মঙ্গলবার রাতে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার চাঁত্রিশিরা গ্রামের সৌদি প্রবাসীর পরিবারের আটজনকে অচেতন করা হয়েছে। দুস্কৃতকারীরা ওই ঘরের পঞ্চম শ্রেনীতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে ধর্ষন করে সর্বস্ত্র লুট করার অভিযোগে বুধবার বিকেলে থানায় মামলা দায়ের করা হয়। পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে মামলার এজাহারভুক্ত আসামি (ধর্ষক) এনামুল মিয়াকে (১৯) গ্রেফতার করেছে।

জানা গেছে, ওই গ্রামের সৌদি প্রবাসীর পিতা হারুন বকতিয়ারের ঘরের রাতের খাবারের সাথে অজ্ঞাতনামা দুস্কৃতকারীরা চেতনানাশক দ্রব্য মিশিয়ে রাখে। ওই খাবার খেয়ে গৃহকর্তা হারুন বকতিয়ার তার স্ত্রী আলেয়া বেগম, পুত্র তরিকুল ইসলাম, জাহিদ, জাকির, হাবিবুল্লাহ, কন্যা সোনিয়া ও পঞ্চম শ্রেনীতে পড়ুয়া কন্য তানিয়া আক্তার অচেতন হয়ে পরেন।

আগৈলঝাড়া থানার ওসি মোঃ সাজ্জাদ হোসেন জানান, মুর্মুর্ষ অবস্থায় ওই পরিবারের অচেতন আটজনকেই গতকাল বুধবার সকালে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় গৃহকর্তা হারুনের ভাই ফারুক বকতিয়ার বাদি হয়ে চেতনানাশক দ্রব্য খাইয়ে সর্বস্ত্র লুট ও পঞ্চম শ্রেনীতে পড়ুয়া ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ এনে থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে ওই মামলার এজাহারভুক্ত আসামি (ধর্ষক) একই গ্রামের জাহাঙ্গীর মিয়ার পুত্র এনামুল মিয়াকে গ্রেফতার করেছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »