আর্কাইভ

গৌরনদীতে বিএনপি নেতা কর্তৃক হিন্দু পরিবারের সম্পত্তি দখল

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ জাল জালিয়াতির মাধ্যমে মালিকানা দাবি করে জোরপূর্বক বরিশালের গৌরনদী উপজেলার দক্ষিণ পালরদী গ্রামের একটি সংখ্যালঘু পরিবারের প্রায় ৩ কোটি টাকা মূল্যের সম্পত্তি দখল করে নিয়েছে প্রভাবশালী বিএনপি নেতারা। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

ওই গ্রামের দিলীপ কুমার দাসের স্ত্রী শোভা রানী দাস (৭৫) জানান, তার দেবর নিতাই কুমার দাস, সুবাস কুমার দাস ও অমল কুমার দাস তাদের পৈত্রিক ওয়ারিশ সুত্রে পাওয়া দক্ষিণ গোবর্দ্ধন মৌজার বিভিন্ন দাগের ১ একর ৮৯ শতক সম্পত্তি তার (শোভা রানীর) নামে পত্তন করে দেন। পরবর্তীতে ১৯৭৬ সনে বরিশাল দ্বিতীয় সাব জজ আদালতের রায়ে তিনি উক্ত জমি ছোলেনামা সূত্রে ডিগ্রী প্রাপ্ত হন। তার এ বিশাল সম্পত্তির ওপর দীর্ঘদিন থেকে লোলুপ দৃষ্টি পরে একই গ্রামের প্রভাবশালী বিএনপি নেতা ফারুক ঠাকুর, মুনসুর সরদার ও এমদাদ সরদারের। প্রভাবশালীরা জাল জালিয়াতির মাধ্যমে কৌশলে তার সম্পত্তির কাগজপত্র নিজেদের নামে সম্পাদন করে মালিকানা দাবি করে। অতিসম্প্রতি ওই সম্পত্তিতে প্রভাবশালীদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা কাটা তারের বেড়া নির্মান করেন। এসময় তাদের বাঁধা দিতে গেলে প্রভাবশালীদের ভাড়াটিয়া লোকজনে শোভা রানীর পুত্র স্বপন দাস ও তপন দাসকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি, প্রাণনাশের হুমকিসহ ভারতে যাওয়ার হুমকি প্রদর্শন করে। অবৈধ দখলের ঘটনায় বরিশাল দেওয়ানী আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আদালতে মামলা চলাকালীন সময় পূর্ণরায় প্রভাবশালীদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা রবিবার রাতে শোভা রানীর সম্পত্তির বাকি অংশ দখল করে কাটা তারের বেড়া দিয়ে সাইনবোর্ড টাঙ্গিয়ে দেয়। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার সকালে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

গৌরনদী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি আবুল কালাম সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সম্পত্তি দখল করে প্রভাবশালীদের সাইনবোর্ড টাঙ্গিয়ে দেয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের ব্যাপারে আমাদের কিছুই করার নেই। একমাত্র আদালতের নিদের্শে আমরা উভয় পক্ষকে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছি। তার পরেও রাতের আধাঁরে প্রভাবশালীরা কাটা তারের বেড়া নির্মান করেছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »